মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English

৭ বছর পর জামালপুর জেলা ছাএলীগের বার্ষিক সম্মেলন

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২২ মার্চ, ২০২২
  • ১৩২ জন সংবাদটি পড়ছেন

জামালপুরঃ  ৭ বছর পর আগামীকাল জামালপুর জেলা ছাএলীগ এর বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সর্বশেষ ২০১৫ সালে ২৮ শে ফেব্রুয়ারী জামালপুর জেলা ছাএলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জামালপুর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন স্থানীয় পাবলিক হলে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।
সেই সম্মেলনে নিহাদুল আলম নিহাদ সভাপতি ও মাকসুদ বিন জালাল প্লাবনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।
দীর্ঘদিন পর সম্মেলনের তারিখ ঘোষণায় প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন ছাত্রলীগে। নতুন কমিটিতে স্থান পেতে বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ। তদবির করছেন জেলার নীতিনির্ধারকদের কাছে। বিভিন্ন সময় জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও নানা কারণে তা আটকে ছিল।
জেলা ছাত্রলীগ সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রত্যাশীদের মনোনয়নপত্র জমা নেন। এতে সভাপতি পদের জন্য ১৩ জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য ২৪ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
জামালপুর সরকারি আশেক মাহমুদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে সকালে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।
বার্ষিক সম্মেলনের সভাপতিত্ব করবেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিহাদুল আলম নিহাদ এবং পরিচালনা করবেন সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ বিন জালাল (প্লাবন)।

সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং এতে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, মির্জা আজম এমপি, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, কেন্দ্রীয় সদস্য মারুফা আক্তার পপি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী, ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি,  ইঞ্জিনিয়ার মো. মোজাফফর হোসেন এমপি, বেগম হোসনে আরা এমপি প্রমুখ।

দীর্ঘ সাত বছর পর আবারও সম্মেলন হওয়ায় ছাএলীগ এর নেতা কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসব এর আমেজ।ছাএলীগ এর নেতৃত্ব পেতে মাঠে রয়েছে সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ব্যানার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে সরকারী আশেক মাহমুদ কলেজ মাঠ সহ পুরো শহর। দায়িত্ব পেলে অতীত অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ছাএলীগ এর নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি দলকে এগিয়ে নেওয়ার কথা,ব্যক্ত করেছেন প্রার্থীরা।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102