শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২৯ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগঞ্জে কৃষকলীগ নেতার কিশোরী গৃহকর্মীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ, কন্যা সন্তান প্রসব

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ২২৯ জন সংবাদটি পড়ছেন

জামালপুরের বকশীগঞ্জে কৃষকলীগ নেতার কান্ডে এতিম অসহায় এক কিশোরী কন্যা মা হয়েছেন। মঙ্গল দুপুরে বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে আটক করা হয়েছে বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দেলুকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, কিশোরী মেয়েটি এতিম।  ছোট রেখেই তার বাবা মারা যায় তার। অভাব অনটনের কারনে মেয়েটিকে তার মা সাধুরপাড়া ইউনিয়নের আর্চচাকান্দি গ্রামের বাসিন্দা ও ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনে ওরফে দেলুর বাড়িতে গৃহ পরিচারিকার জন্য কাজে দেয়। এর পরেই অসহায় কিশোরীর উপর লোলুপদৃষ্টি পড়ে কৃষকলীগ নেতা দেলোয়ারের।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষন করে দেলোয়ার হোসেন দেলু। এক পর্যায়ে কিশোরী অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়ে। এরপর বাচ্চাটি নষ্ট করার জন্য কিশোরীকে চাপ প্রয়োগ করতে থাকে দেলোয়ার। কয়েক দফা ও কিশোরীকে হাসপাতালেও নিয়ে যাওয়া হয়।

কাউকে বললে মেরে ফেলার হুমকি দেয় সে। লজ্জায় ও ভয়ে বিষয়টি কাউকে জানায়নি কিশোরী ও তার মা।

মঙ্গলবার বিকালে পেটে ব্যাথা নিয়ে হাসপাতালে আসে ওই কিশোরী। ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ফেরার সময় হাসপাতালের বাথরুমে যায় সে। সেখানেই ফুটফটে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয় সে। বিষয়টি মুহুর্তেই চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

সাধুরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু  জানান, ঘটনাটি আমি শুনেছি। মেয়েটির অসহায়ত্বের সূযোগ নিয়েছে দেলোয়ার। আমি দেলোয়ারকে মেয়েটিকে বিয়ে করে সামাজিক ভাবে নবজাতক সন্তানের স্বীকৃতি দিতে বলেছি।

বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, ঘটনার শোনার সাথে সাথে অভিযান চালিয়ে দেলোয়ারকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102