রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
কিডনী রোগী মিম এর পাশে দাঁড়ালেন জামালপুরের পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন করোনাকালীন সময় মানুষের পাশে প্রবাসী বাংলাদেশি শারমিন রহমান এবং শেখ আরিফ রাব্বানি জামি বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের পাঁশে দাড়ালেন মেয়র নজরুল বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ড, ৭ লক্ষ টাকা ক্ষতি শারীরিক প্রতিবন্ধী নারীকে আর্থিক সহায়তা করলেন পুলিশ সুপার বকশীগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা রশীদ মাষ্টারের মৃত্যু, সর্ব মহলে শোক বকশীগঞ্জে সাংবাদিক পরিবারের উপর হামলাকারী রাসেলের জামিন নামঞ্জুর জামালপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ জামালপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৭তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত জামালপুরে মুক্তিযোদ্ধার জমি অবৈধ ভাবে দখলের চেষ্টা

বকশীগঞ্জে গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার, শ্বাশুড়ী আটক

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১
  • ৫৫৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

বকশীগঞ্জঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার স্বপ্না বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সকালে উপজেলার নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নের বিনোদেরচর এলাকায় শশুর বাড়ি থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। স্বপ্না বেগম ওই এলাকার মিজান আলীর স্ত্রী ও শ্রীবরদী উপজেলার খাটিয়াডাঙ্গা এলাকার সজল হকের মেয়ে। এই ঘটনায় সৎ শাশুড়ী মলিনা বেগম (৫০)কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে স্বামী মিজান আলী (২৮) ও আপন শাশুড়ী মরজিনা বেগম (৪৮)।

এলাকাবাসী জানায়, গত প্রায় ৫ বছর আগে বকশীগঞ্জের বিনোদেরচর গ্রামের তোফাজ্জল হকের ছেলে ভ্যান চালক মিজানের সাথে শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের খাটিয়াডাঙ্গা এলাকার সজল হকের মেয়ে স্বপ্না বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বপ্নাকে প্রায়ই নির্যাতন চালাতো মিজান। বৃহস্পতিবার সকালে গৃহবধুর স্বপ্নার লাশ দেখে থানা পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার ও সৎ শাশুড়ী মলিনা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে নিহত স্বপ্নার চাচা খোরশেদ আলম জানান, সকালে ফোনের মাধ্যমে স্বপ্না আত্মহত্যা করেছে বলে জানায় তার স্বামী মিজান। খবর পেয়ে আমরা বিনোদেরচর এলাকায় আসি। এসে দেখি স্বপ্নার লাশ পড়ে রয়েছে ঘরের মেঝেতে। তার স্বামী মিজান ও আপন শাশুড়ী পালিয়েছে। আসলে আমার ভাতিজি স্বপ্না বেগম আত্মহত্যা করেনি। তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলেছে তিনি দাবী করেন।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সৎ শাশুড়ীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102