শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
করোনাকালীন সময় মানুষের পাশে প্রবাসী বাংলাদেশি শারমিন রহমান এবং শেখ আরিফ রাব্বানি জামি বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের পাঁশে দাড়ালেন মেয়র নজরুল বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ড, ৭ লক্ষ টাকা ক্ষতি শারীরিক প্রতিবন্ধী নারীকে আর্থিক সহায়তা করলেন পুলিশ সুপার বকশীগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা রশীদ মাষ্টারের মৃত্যু, সর্ব মহলে শোক বকশীগঞ্জে সাংবাদিক পরিবারের উপর হামলাকারী রাসেলের জামিন নামঞ্জুর জামালপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ জামালপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৭তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত জামালপুরে মুক্তিযোদ্ধার জমি অবৈধ ভাবে দখলের চেষ্টা বকশীগঞ্জে লক ডাউনে দোকানের ছবি তোলায় সাংবাদিকের উপর হামলা, হামলাকারী আটক

বকশীগঞ্জে রহস্য উদঘাটন করলেন ওসি, জিজ্ঞাসাবাদে জানালো সে বাংলাদেশী

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১
  • ১২১৪ জন সংবাদটি পড়ছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে সুমন মিয়া(২৩) নামে এক ভারতীয় আটক নিয়ে দিনভর নাটক চলে। এই নাটকের যবনিকা টানলেন ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট। ভেদ করলেন রহস্য, অবশেষে বেড়িয়ে এলো সত্য।

সোমবার রাতে সীমান্তবর্তী কামালপুর বাজার থেকে সুমনকে আটক করে স্থানীয় জনগন। পরে তাকে নিয়ে স্থানীয় কামালপুর বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে গেলে বিজিবি তাকে গ্রহন করতে অস্বীকার করে। পরে দুপুরে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ আটক সুমন মিয়াকে ভারতীয় বলে আটক করে।আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়,তার বাবার নাম মৃত তালেব মেম্বার গ্রাম- এশকুশপাড়া থানা- কোতয়ালী জেলা- জলপাইগুড়ি দেশ- ভারত। প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। পরবর্তীতে থানা পুলিশ উক্ত ব্যক্তি কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বকসীগঞ্জ এ নিয়ে rapid antigen test করার ব্যবস্থা গ্রহণ করে এবং আইসোলশনে এ রাখে। এ সময় অফিসার ইনচার্জ বকসীগঞ্জ থানা শফিকুল ইসলাম ও ইউএইচএফপিও ডাঃ প্রতাপ নন্দী ও এস আই খাইরুল ইসলাম এর ব্যপক জিজ্ঞাসাবাদে উক্ত আটক ব্যক্তি জানান তার নাম সুমন হোসেন (২৩) পিতা-মৃত তালেব মেম্বার পালক পিতা- মফিজল হক মাতা-জরিফুল ভাই-তানভীর হোসেন স্ত্রী- আকলিমা গ্রাম-পলবান্ধা থানা- ইসলামপুর জেলা- জামালপুর।

সে আরও জানায় তার মা ও স্ত্রীর সাথে রাগ করে বাড়ি ছেড়ে ধানুয়া কামালপুর এলাকায় চলে আসে। শারীরিক ভাবে অসুস্থ থাকায় এবং অনেক লোক দেখে ভীত হয়ে সে এলোমেলো কথা বলে।

উল্লেখ্য যে উক্ত সুমন এর পিতা মৃত তালেব মেম্বার দীর্ঘদিন পূর্বে তার পিতার সহিত ভারত গিয়েছিল এবং কিছু দিন অবস্থান করেছিল। সে সময় তার পিতা একজন ভারতীয় মহিলা কেও বিবাহ করেছিল। জনগণ কর্তৃক আটকের পর তাই সে উক্ত জলপাইগুড়ির ঠিকানা ব্যবহার করে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ইসলামপুরে ভাই এর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102