বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
বকশীগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের জের, থানায় চাঁদাবাজীর অভিযোগ করল আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য বকশীগঞ্জে রহস্য উদঘাটন করলেন ওসি, জিজ্ঞাসাবাদে জানালো সে বাংলাদেশী বকশীগঞ্জে এসডিজি নীতিমালা বাস্তবায়ন ও প্রত্যাশা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত বকশীগঞ্জে জনতার হাতে আটক ভারতীয় নাগরিককে উদ্ধার করল পুলিশ বকশীগঞ্জে কর্মরত পুলিশ কনেস্টবল নিজামের অর্থে ১ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার বকশীগঞ্জে দিনমজুর সেজে গণধর্ষন মামলার আসামী গ্রেফতার করল পুলিশ বকশীগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক দলের দুই ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটি গঠিত বকশীগঞ্জে শ্বশুর ও দেবরের নির্যাতনে মৃত্যু শয্যায় গৃহবধু বকশীগঞ্জে নারীসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ৬ দফা দিবসে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

নিলক্ষিয়ায় কিশোর গ্যাং সক্রিয়, প্রতিকার চায় এলাকার মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ৭৪৮ জন সংবাদটি পড়ছেন
নিলক্ষিয়া চৌরাস্তা মোড়
নিলক্ষিয়া চৌরাস্তা মোড়

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে উপজেলার নিলক্ষিয়ায় কিশোর গ্যাং সক্রিয়। দলীয় নাম ভাঙ্গিয়ে একের পর এক অপরাধ করে পার পেয়ে যাচ্ছে। এতে ঐতিহ্যবাহী ছাত্রলীগের পাশাপাশি সরকারী দলের ভাবমুর্তি চরমভাবে ক্ষুন্ন হচ্ছে। এখনি এই চক্রটির হাত রক্ষা পেতে চায় এলাকাবাসী।

সরকারী অনুমোদন ব্যতিত দশানী নদী থেকে বালু উত্তোলন, সাধারন মানুষদের মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসিয়ে টাকা আদায়, এলাকার মানুষের মধ্যে দ্বন্দ্ব হলে এক পক্ষ থেকে কিনে তা বিচার করে অর্থ আদায়সহ বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত এই চক্রটি।

এই চক্রের হাত থেকে রক্ষা পায়নি বকশীগঞ্জ থানার এক সময়ে দুর্দান্ত প্রতাপশালী ওসি আসলাম হোসেনেও। ওসি আসলামকে বেকায়দায় ফেলতে এই চক্রের অন্যতম সদস্য বর্তমানে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতি আসাদ মিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওসিকে মৃত্যুর জন্য দায়ী করে স্ট্যাটাস দিয়ে বিষপানের নাটক করেন। এই নিয়ে সারা জামালপুরের তোলপাড়ে সৃষ্টি হয়। এর আগে আসাদ ও তার বড় ভাই সেলিমসহ ৪জনকে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে নিলক্ষিয়া দক্ষিণ ব্যাপারীপাড়া মোড় থেকে ২৮ ইঞ্চি দাসহ আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। ৩ মাস জেলের ঘানি টানার পর হাজত থেকে বের হয়ে ওসি আসলামের বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে বিষপান করে।

পড়ুনঃ ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ছাত্রলীগ নেতার বিষপান

এ চক্রের কাছে জিম্মি পুরো নিলক্ষিয়ার মানুষ। গত বছর ১১ অক্টোবর নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন হওয়ার পর এই চক্রটি আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।
এ চক্রের নিকট নিকট নিজ দলের নেতারাও নিরাপদ নয়। স্বার্থের ব্যাঘত ঘটলেই দেয় মিথ্যা মামলা। গত ১৯ মে রাতে দাড়িপুরা এলাকায় জনৈক রাসেল মিয়া এক ছিনতাইয়ের শিকার হন। প্রথমে স্থানীয় লোকজনের নিকট ২ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ছিনতাইয়ের কথা জানায়। এই সুযোগটাই গ্রহন করে সেই কিশোর গ্যাং চক্রটি। পরবর্তী সময়ে রাসেল মিয়ার সহযোগি মোবারকের বাড়ীতে গিয়ে ২ হাজার টাকাও আদায় করে চক্রটি।
মোবারকের বাবা সাজু মিয়া জানান, আমার ছেলে মোবারক ও রাসেল কাজের লোক ঠিক করার জন্য পাশ্ববর্তী বালুঘাটা যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে। পরবর্তী সময়ে নাটক সাজিয়ে আমার ছেলেকে আটকে রেখে আমার কাছে ২ হাজার টাকা দাবী করলে আমার ছেলের জীবনের কথা ভেবে সেই টাকাটা আমি দেই। টাকা পেয়ে আমার ছেলেকে মুক্ত করে দেয় চক্রটি। যাবার সময় একটি মোবাইল নম্বর দেওয়া একটি কার্ড দিয়ে যায়। আমরা ফোন দিলে আরও ২৮ হাজার ৪০০ টাকাসহ আরও ২টি মোবাইল সেট দাবী করে আসছে এই চক্রটি। টাকা দিতে অস্বীকার করলে পরবর্তী সময়ে থানায় ৫৭ হাজার ৭০০ টাকা টাকা ও সাথে একটি মোবাইল খোয়া যায় বলে রাসেল মিয়া বাদী হয়ে ৩ জন নামীয় ব্যক্তিদের নামে বকশীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগে পুর্বশত্রুতার জের ধরে নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও ঢাকা কর্মাস কলেজের সম্মাণের ৩য় বর্ষের ছাত্র সাদ্দাম হোসেনের নামও অর্ন্তভুক্ত করে।
এই ঘটনার সংবাদ সংগ্রহের দুই জন সাংবাদিক ঘটনাস্থলে পৌছিলে তাদের সাথেও চরম খারাপ ব্যবহার কিশোর গ্যাং চক্রের অন্যতম হোতা আসাদ।
অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ তদন্তকালে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের সংশ্লিষ্টতা পায়নি। তদন্তের পর থেকে অভিযোগ দায়েরকারী রাসেল মিয়া থানায় আর যোগাযোগ করেনি।
এ ঘটনা নিয়ে স্থানীয় নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হক মিষ্টারের ব্যক্তিগত অফিস কক্ষে বিষয়টি সমধানে আলোচনা চলাকালে সিনিয়র নেতাদের হুমকি দিয়ে চরম বেয়াদবি করে ঘর থেকে বের হয়ে যায় এই চক্রটি।

আরও পড়ুনঃ নিলক্ষিয়া ছাত্রলীগের সভাপতির পদ যেন আলাদীনের চেরাগ

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102