বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩১ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
বকশীগঞ্জে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে আপন ভাইদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন বকশীগঞ্জে ধর্ষনের শিকার পোষাক শ্রমিক, ধর্ষক আটক বকশীগঞ্জে যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধির ওষুধ তৈরী ও বিক্রির দায়ে ১ জনের জেল শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর বকশীগঞ্জ পৌর মানবাধিকার কমিশনের কমিটি অনুমোদন বকশীগঞ্জে বাংলাদেশ সেল ফোন রিপেয়ার ট্যাকনেশিয়ান এসোসিয়েশনের পরিচিতি সভা কামালপুর ইউনিয়নে মানবাধিকার কমিশনের কমিটির অনুমোদন বকশীগঞ্জে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ২টি বাল্য বিয়ে পন্ড, কনের বাবার জরিমানা বকশীগঞ্জে ট্রাকের চাপায় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের মৃত্যু বকশীগঞ্জে বিট পুলিশিং সচেতনতায় পথসভা অনুষ্ঠিত

বকশীগঞ্জ পৌর নির্বাচন । নুর মোহাম্মদ মাঠে, পাল্টে গেছে হিসাব নিকাশ

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৬৩৭ জন সংবাদটি পড়ছেন

জামালপুরের বকশীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে কোন্দল-বিভেদ ভুলে দলীয় মেয়র প্রার্থীকে জেতাতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। সকল ভেদাভেদ, দ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে অবশেষে একাট্টা হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রচার-প্রচারণা ও মাঠে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিজয়।

জানা গেছে, বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদসহ জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহীনা বেগমের মধ্যে মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এ নিয়ে দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচি আলাদাভাবে পালন করেছেন মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এরই মধ্যে গত ১২ নভেম্বর বকশীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন। তফসিল ঘোষণার পর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইসমাইল হোসেন বাবুল তালুকদার, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহীনা বেগমসহ সাতজন মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।

নপত্র সংগ্রহ করেন। গত ২৪ নভেম্বর আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহীনা বেগমকে দলীয় মনোনয়ন দেয়। এরপর থেকে কানাঘুষা চলতে থাকে উপজেলা আওয়ামী লীগ কোন দিকে যাবে। এ নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশক্রমে এবং দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে বর্ধিত সভার ডাক দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ। গত বুধবার দলীয় কার্যালয়ের সামনের মাঠে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় সাতঘন্টা ধরে চলা ওই বর্ধিত সভায় আলোচনা-সমালোচনা, মান-অভিমান, সকল দুঃখ বেদনা ভুলে নেতৃবৃন্দকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ।

বর্ধিত সভায় আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী শাহীনা বেগম নেতা-কর্মীদের মাঠে থেকে নৌকা প্রতীকের বিজয় অর্জনের জন্য সকলকে একযোগে কাজ করার অনুরোধ করেন। এক পর্যায়ে বর্ধিত সভায় সিদ্ধান্ত হয় শেখ হাসিনার প্রার্থীকে জয়ী করতে হবে। অবশেষে ঐক্যবদ্ধ হয় সকল নেতৃবৃন্দ। ইতোমধ্যে দলীয় প্রার্থীকে জেতাতে তোড়জোড় শুরু করেছে আওয়ামী লীগ। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু জাফর ও দলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিজয়ের নেতৃত্বে গঠন করা হয়েছে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। এই কমিটির সদস্যদের নেতৃত্বে আগামী ২৮ ডিসেম্বর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কারণে নৌকার পালে হাওয়া লাগতে শুরু করেছে।

পাল্টে গেছে ভোটের হিসাব নিকাশও। প্রতিদিন দলে দলে গণসংযোগ ও প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন তৃণমূলের কর্মীরা। এই নির্বাচনকে আওয়ামী লীগ প্রেস্টিজ ইস্যু হিসেবে দেখছেন। কারণ এবারই প্রথম বকশীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তাই প্রথম মেয়র হবে আওয়ামী লীগের এমন ধারণাই করছেন দলের নেতা-কর্মীরা।

এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিজয় বলেন, দলে কোনো কোন্দল নেই, নৌকার প্রার্থীকে জয়ী করতে নেতা-কর্মীরা মাঠে আছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ বলেন, মান-অভিমান ভুলে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। আগামী নির্বাচনে দলের প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করাই আমাদের প্রধান দায়িত্ব। তাই নেতা-কর্মীরা সর্বাত্মক মাঠে নেমেছে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102