শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৩:৫০ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :

সংসদ নির্বাচন জামালপুর-২ ঃ ইসলামপুরে বিএনপি’র একক ও আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থী

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০১৭
  • ১০৭৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

নারায়ন মোদক,ইসলামপুর প্রতিনিধিঃ
১১তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামালপুর-২ ইসলামপুর আসনে দলীয় মনোনয়েনের জন্য বিএনপি’র একক ও আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা ও গণসংযোগ চলছে। এসব সম্ভাব্য প্রার্থীরা এলাকায় ডিজিটাল ব্যানার,সাইনবোর্ড ও পোষ্টার লাগিয়ে ভোটারদের দোয়া কামনার পাশাপাশি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। অনেকেই দলীয় মনোয়ন নিশ্চিত করতে স্বস্ব নির্বাচনী এলাকার গণসংযোগ ও দলের কেন্দ্রিয় পর্যায়ে লবিং শুরু করেছেন।

স্বাধীনতার পর এ আসনে আওয়ামীলীগ আট বার, বিএনপি একবার এবং জাতীয় পার্টি (এরশাদ) এর প্রার্থী একবার এমপি হয়েছে। তাই আওয়ামীলীগের ঘাটি বলে খ্যাত এবার ইসলামপুরে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী তিনজন। প্রার্থীরা হলেন বর্তমান এমপি মাহজাবিন খালেদ বেবী, ফরিদুল হক দুলাল ও আলহাজ শাহজাহান আলী মন্ডল। তন্মধ্যে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী মাহজাবিন খালেদ বেবী এমপি মহান মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার শহীদ বিগ্রেডিয়ার জেনারেল খালেদ মোশারফের কন্যা। তিনি সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হয়েও নিজ এলাকা ইসলামপুরে প্রতিনিয়ত খুজঁ খবর নেওয়াসহ উপজেলা ও পৌর শহরসহ প্রতিটি ইউনিয়নে গ্রামে গ্রামে গিয়ে উঠান বৈঠক করে জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরছেন। রাজনৈতিক পরিবারের বড় হওয়া বেবি এমপি হওয়ার পর তার সফলতার আলো ছড়িয়ে এলাকার মানুষের মাঝে ও হৃদয়ে মিশে গেছেন। মাহজাবিন খালেদ ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের দলের প্রবীণ ও ত্যাগীনেতাকর্মীসহ সকল নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে আওয়ামীলীগের নৌকার পাল তুলে দীর্র্ঘ দিন ধরে তিনি এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড করে যাচ্ছেন। একারণে আগামী নির্বাচন জামালপুর-২,ইসলামপুর আসনের সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী হিসাবে তিনি অনেকটাই সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। তাই আগামী সংসদ নির্বাচনে মাহজাবিন খালেদ নৌকা প্রতিক পেতে পারেন বলে অনেকেই জানিয়েছেন।
অন্যদিকে দুই বারের এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তবে তার বিরুদ্ধে দলের প্রবীন ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করা,আত্মীয়করন, স্বজনপ্রীতি, দলবাজি ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।
এছাড়াও তিনি এমপি হওয়ার পরও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদের লোভ সামলাতে পারেননি। এতে দলটি দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়ায় দলীয় কোন্দলের কারণে তিনি বর্তমানে সাংগঠনিক ভাবে দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে একটু বেকায়দার রয়েছেন।

এ আসনে আওয়ামীলীগের অপর সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে এলাকায় পোস্টার সাইনবোর্ড টানিয়েছেন ঢাকা শাহজালাল বিমান বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জামালপুর জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আলহাজ শাহজাহান আলী মন্ডল। নিবার্চন এলেই হঠাৎ সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে বসন্তের কোকিলের ন্যায় ইসলামপুরে উদয় হন তিনি। তবে তিনি সব সময় ঢাকা অবস্থান করলেও বিগত দিনের উপজেলা আওয়ামীলীগের দূর্নীদিনে নেতা কর্মীদের পাশে ছিলেন।

অপরদিকে এ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য একক প্রার্থীর হিসাবে সাবেক এমপি সুলতান মাহমুদ বাবু মাঝে মধ্যেই ঢাকা থেকে এলাকায় এসে সাংগঠনিক কার্যক্রম ও গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। বিগত জোট সরকার আমলে তিনি ইসলামপুরের অসংখ্য রাস্তাাঘাট,ব্রীজ-কালভার্ট ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন করায় এলাকার সাধারণ ভোটারের মধ্যে তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

এছাড়াও এ আসন থেকে আগামী নির্বাচনে বিশ দলীয় জোটের প্রধান শরিক জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রিয় নেতা মৌলানা সামিউল হক ফারুকী প্রার্থী হওয়ার জন্য জোর চেষ্টা করছেন বলে দলটির একাধিক সুত্রে জানাগেছে। তবে তার নাম শোনা গেলেও তিনিও মাঠে নেই।

অন্যদিকে জাতীয় পার্টি (এরশাদ) থেকে এ আসনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে জিল্লুর রহমান বিপুর নাম শোনা যাচ্ছে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102