সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগেঞ্জে কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মান, ইউএনও এর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ৭৮৭ জন সংবাদটি পড়ছেন

জামালপুরঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে নিলক্ষিয়া ইউনিয়নে পাগলাপাড়া গ্রামে একটি কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মানকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উত্তেজনা ফল আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। এ নিয়ে জামালপুর বিজ্ঞ আদালতে পাগলাপাড়া গ্রামের শাহাজামাল বাদী হয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিবাদী করে একটি মামলাও হয়েছে। মামলা নং ১১৬/২১ (অন্যপ্রকার)।

বাড়ী ঘর ভেঙ্গে ও কবরস্থানের উপর দিয়ে জোর করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ এনে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, প্রকল্পের সভাপতি নৌরুজ ও সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মিষ্টারকে বিবাদী করে মামলাটি দায়ের করা হয়।

এ নিয়ে আদালতও বেশ বিব্রত।  সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ইত্যিমধ্যে কমিশন গঠনে সরজমিনের তদন্তের ২ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। গত শুক্রবার কমিটির সদস্যরা তদন্তও করে গেছেন।

মামলার বাদী শাহাজামাল সাংবাদিকদের জানান, আমি নিতান্তই গরীব মানুষ, আমার বসতভিটা দখল করে একটি প্রভাবশালী চক্র রাস্তা নির্মানের পায়তারা করছে। সে কারণে ন্যায় বিচারের আশায় রাস্তা নির্মান বন্ধ করতে আদালতের শরানপন্ন হয়েছি।

স্থানীয় বাসিন্দা ও নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য রুকুনু্জ্জামান মিষ্টার জানান, রাস্তাটি নির্মান হচ্ছে দীর্ঘদিনের পুরানো একটি কবরস্থানের উপর দিয়ে। কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মান হলে এদিকে কবরস্থানের জায়গা কম হবে অন্যদিকে কবরস্থানের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হবে।

প্রকল্পের সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মিষ্টার জানান, যে স্থান দিয়ে রাস্তা নির্মান হচ্ছে সেটি অনেক আগে থেকেই রাস্তা ছিল। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে সরকারের উন্নয়ন বাধা গ্রস্থ করতে প্রথম থেকেই একটি চক্র রাস্তা নির্মানে বাঁধা দিয়ে আসছে। তারা ব্যক্তিগত সম্পত্তির উপর দিয়ে রাস্তা হচ্ছে এমন মিথ্যা অভিযোগ এনে তারা আদালতে মামলা করেছে। আদালত কর্তৃক গঠিত কমিশনের সদস্যরা এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এখন আদালত যে সিদ্ধান্ত দিবে সেই মোতাবেক কাজ করতে করব।

নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তার জানান, এ নিয়ে আদালতে একটি মামলা হয়েছে ও একটি কমিশন গঠিত হয়েছে। কমিশনের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, এখন আদালত যে সিদ্ধান্ত দিবে সেই মোতাবেকই কাজ করা হবে।

এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনমুন জাহানের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102