রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
কিডনী রোগী মিম এর পাশে দাঁড়ালেন জামালপুরের পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন করোনাকালীন সময় মানুষের পাশে প্রবাসী বাংলাদেশি শারমিন রহমান এবং শেখ আরিফ রাব্বানি জামি বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের পাঁশে দাড়ালেন মেয়র নজরুল বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ড, ৭ লক্ষ টাকা ক্ষতি শারীরিক প্রতিবন্ধী নারীকে আর্থিক সহায়তা করলেন পুলিশ সুপার বকশীগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা রশীদ মাষ্টারের মৃত্যু, সর্ব মহলে শোক বকশীগঞ্জে সাংবাদিক পরিবারের উপর হামলাকারী রাসেলের জামিন নামঞ্জুর জামালপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ জামালপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৭তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত জামালপুরে মুক্তিযোদ্ধার জমি অবৈধ ভাবে দখলের চেষ্টা

বকশীগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএমকে অপসারণে মিথ্যা অভিযোগের ভাগাড়

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮০৯ জন সংবাদটি পড়ছেন




স্টাফ রিপোর্টারঃ যোগদান করেই বিদ্যুত অফিসের সকল অনিয়ম ও দুর্নীতের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ায় যোগদানের মাত্র দেড় মাসের মাথায় একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ এনে বকশীগঞ্জ যোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) জয় প্রকাশ নন্দীকে অপসারনের জন্য বিভিন্ন দপ্তরের একের পর এক মনগড়া অভিযোগ দায়ের এর ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার বিকালে বকশীগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ যোনাল অফিস সুত্রে এ তথ্য জানা যায় যায়।

এ প্রসঙ্গে বকশীগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম জয় প্রকাশ নন্দী জানান, আমি গত ২৪ ফেব্রুয়ারি এই কার্যালয়ে যোগদান করেছি। আমি যোগদানের পর অত্র কার্যালয়ের কয়েকজন ইলেক্ট্রিশিয়ান তাদের স্বার্থে আঘাত হানায় তারা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করে।


তারা একের পর এক মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ তুলে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে অভিযাগ দায়ের করেন।

একই সাথে সমিতির জুনিয়র প্রকৌশলী শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধেও বিভিন্ন অভিযোগ দায়ের করেন তারা। শুধু অভিযোগই নয় অত্র কার্যালয়ের এক নারী কর্মচারীর স্বাক্ষর জাল করে তার নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ আকারে পাঠানো হয়।

জয় প্রকাশ নন্দী আরো জানান, ওই মহলটি আমি আসার পর থেকে অনৈতিক সকল সুযোগ সুবিধা না পেয়ে আমার কার্যালয় সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে উঠে পড়ে লেগেছে। তারা ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছেন। একই সাথে জনগণকে বেকায়দায় ফেলতে তারা বাড়তি সুযোগ সুবিধা নিতে চাইছেন। কিন্তু আমি যতদিন আছি ততদিন কোন রকম দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, গ্রাহক ভোগান্তি, অনিয়ম হতে দেব না। আমি চেষ্টা করছি আবেদন করার এক দিনের মধ্যে গ্রাহকদের কাছে মিটার পৌছে দেওয়ার। গ্রাহকদের সেবা নিশ্চিত করতে এক ইঞ্চি পিছপা হব না।

তাদের দেওয়া অভিযোগের পরও ইলেক্ট্রিশিয়ানদের ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তারা সাড়া দেন নি।

 

এ বিষয়ে জামালপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার আলমগীর হোসেন জানান, অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় তার বিরুদ্ধে স্থানীয় কিছু ইলেক্ট্রিশিয়ান বিভিন্ন দপ্তরে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। যারা এ ঘটনার সাথে জড়িত চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102