মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:২৪ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগঞ্জে ভুয়া জন্ম সনদের ছড়াছড়ি, দায়ভার কি শুধু উদ্যেক্তার?

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮৬৫ জন সংবাদটি পড়ছেন
কর্তৃপক্ষের স্বাক্ষরবিহীন জাল জন্ম সনদ

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে সবত্র পাওয়া যাচ্ছে ভুয়া জন্ম সনদ। এতে প্রতারিত হচ্ছে সাধারন মানুষ।

বকশীগঞ্জ বিভিন্ন কম্পিউটার দোকানে প্রযুক্তি ব্যবহার করে এসব সনদ তৈরী করা হচ্ছে বলে জানান ভুক্তভোগিরা।

সরজমিনে দেখা যায়, বকশীগঞ্জ উপজেলার প্রতিটি কম্পিউটার দোকানে গ্রাফিক্স সফটওয়ার ফটোশপ ব্যবহার করে এসব জন্ম নিবন্ধন তৈরী করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের স্বাক্ষরও জ্বাল করার ঘটনাও ঘটছে অহরহ।

সম্প্রতি জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সার্ভারের উন্নত করন করার ফলে এখন থেকে প্রতি জন্মসনদ করতে গেলে বাবা ও মায়ের জন্ম সনদসহ ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বরসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি প্রয়োজন হয়। এ করাণে পিতামাতার জন্ম সনদ না থাকায় জন্ম সনদ করতে বিড়ম্বনা সম্মুখিন হতে হয়। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে একটি চক্র কম্পিউটারে ফটোশপ ব্যবহার করে তড়িৎ গতিতে জন্মসনদ দিয়ে আসছে।

সম্প্রতি বকশীগঞ্জ উলফাতুন্নেছা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভর্তির সময় এসব ভুয়া সনদ ধরা পড়েছে বলে জানাগেছে। এদের বেশিরভাগই বাইরে কম্পিউটার দোকান থেকে স্ক্যান করা ভুয়া সনদ ।

এসব জন্ম সনদ অনলাইনে যাচাই বাছাই করলে নাম ও জন্ম তারিখের গড়মিল দেখা দেয় বা অন্য নাম চলে আসছে। এর দায়ভার পড়ছে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যেক্তাদের উপর।

এ নিয়ে বকশীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্ত মনিকা পারভীন সাংবাদিকদের জানান, অনেক সনদ বিভিন্ন দোকান থেকে বানানো হয়েছে এতে উদ্যোক্তাদের উপর দোষ চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনমুন জাহান লিজা জানান, যারা ভুয়া জন্ম সনদ সরবরাহ করেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102