মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাবে অতিরিক্ত সচিব শাওলী সুমনের রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল বক‌শীগঞ্জ উপ‌জেলা বিএন‌পি`র আহ্বায়ক ক‌মি‌টির প‌রি‌চি‌তি সভা বকশীগঞ্জ ২ হাজার ভারতীয় জাল রুপিসহ আটক ৭ বকশীগঞ্জে শিশু হত্যা, পিতার মৃত্যুদণ্ড বকশীগঞ্জ বিএনপির সংবাদ সম্মেলন, কমিটির আত্ম প্রকাশ শিক্ষা ও গবেষণায় এগিয়ে নেয়ার অঙ্গীকারে বশেফমুবিপ্রবি’র বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন দলকে সুসংগঠিত করাই এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্চ… মানিক সওদাগর আরব সাগরে ভেঙে পড়লো ভারতীয় যুদ্ধবিমান, পাইলটের মৃত্যু বকশীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কমিটি॥ মানিক-আহ্বায়ক, মতিন- সদস্য সচিব বকশীগঞ্জ পৌর বিএনপি ॥ প্রিন্স-আহ্বায়ক, গামা-সদস্য সচিব

বকশীগঞ্জে রাতে চালু থাকা ড্রেজারে বালু উত্তোলন বন্ধ করলেন ওসি

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ৮২ জন সংবাদটি পড়ছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জের নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের কুশনগর গ্রামে রাতের আধারে চালু করে ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলন বন্ধ করলেন বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম।
রবিবার দুপুরে বকশীগঞ্জ থানার এসআই আকরাম হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে এসব ড্রেজার মেশিন বন্ধ বন্ধ করে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল মালেকের হেফাজতে রেখে চলে আসেন।
তবে এখনো স্থানীয়দের আশংকা পুরোপুরি দুর হয়নি।
স্থানীয়রা জানায়, এর আগেও এভাবে কয়েকবার বন্ধ করা হয়েছিল কিন্তু প্রভাবশালীরা এমপি আবুল কালাম আজাদের নাম ব্যবহার করে রাতে ড্রেজার চালু করে বালু উত্তোলন করে। এছাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বদলী জনিত কারণেও তারা দশানী নদী থেকে বালু উত্তোলন করে আসছে।
কুশলনগর গ্রামের রিপন মিয়া জানান, গভীর রাতে তারা ড্রেজার চালু করে এসব বালি উত্তোলন করে থাকেন। ভোর রাতে ড্রেজার মেশিন বন্ধ করে সামান্য কয়েকটি লার্ট খোলে অন্যত্র সরিয়ে রাখেন।
একই গ্রামের লাবলু মিয়া জানান, স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারী হওয়ার কারণে রাতের সুযোগটা ব্যবহার করছেন বালু উত্তোলনকারীরা।
এদিকে অব্যাহত বালু উত্তোলনের ফলে নদী দুই পার্শ্বে দেখা দিয়ে তীব্র ভাঙ্গন। এ বছরেই নদী ভাঙ্গনের শিকার হয়ে ১০টি পরিবার তার ঘরবাড়ী অন্যত্র সরিয়ে নিলেও ভীটামাটি নদী বিলীন হয়ে গেছে।
আরও কমপক্ষে ৫০টি পরিবার ও ১টি কবরস্থান চরম হুমকির মুখে। বালু উত্তোলন বন্ধ না হলেও চলতি বছরে এসব বাড়ী ঘর নদীতে বিলীন হয়ে যাবে।
এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম স¤্রাট জানান, কোনভাবেই অবৈধভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন করতে দেওয়া হবে না। যারা এ কাজের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102