শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ০৯:১৮ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
শিরোনাম :

জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি  ॥ পানি বন্দি ৫ লাখ মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার, বকশীগঞ্জ
  • প্রকাশের সময়ঃ বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
  • ১৬০ এ পর্যন্ত খবরটি পড়েছেন-

জামালপুরঃ টানা কয়েক দিনের অবিরাম বর্ষণ ও ভারতের উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে দ্বিতীয় দফা বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। ইত্যিমধ্যে ১৯৮৮ সালের রের্কড ভেঙ্গেছে চলতি বন্যা।

বুধবার  (১৫জুলাই) সন্ধ্যা ৬টায় বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় যমুনার পানি বিপৎসীমার ১২৮ সেন্টি মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (পউবো)’র জামালপুরের পানি মাপক গেজ পাঠক আব্দুল মান্নান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশন ও রেল লাইনে পানি উঠায় দেওয়নগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষনা করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। তবে তিস্তা-ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেন দু’টি ইসলামপুর পর্যন্ত চলাচল অব্যাহত রাখা হয়েছে।

জামালপুর রেল স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন মাস্টার শেখ উজ্জ্বল মাহমুদ  জানান, ইসলামপুর থেকে দেওয়ানগঞ্জ রোডে বেশ কয়েকটি জায়গায় রেল লাইনে পানি উঠায় আপাদত ইসলামপুর পর্যন্ত রেল চলাচলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত ইসলামপুর পর্যন্ত ট্রেন আসবে এবং ইসলামপুর স্টেশন  থেকেই ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবে।

চলতি ভয়াবহ বন্যায় জামালপুরের ৬৮ ইউনিয়নের মধ্যে বর্তমানে ৪২ ইউনিয়নের প্রায় ৫ লক্ষ মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। চলতি মাসেই দ্বিতীয় দফা বন্যায় দুর্ভোগের পরিমানটা অনেক বেশি।

বন্যা কবলিত এলাকার গুলোর মধ্যে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা চুকাইবাড়ী, চিকাজানী, বাহাদুরাবাদ, চর আমখাওয়া ইউনিয়ন, ইসলামপুর উপজেলার পার্থর্শী, কুলকান্দি, বেলগাছা, চিনাডুলী, নোয়ারপাড়া, ইসলামপুর সদর, পলবান্দা, ইসলামপুর পৌরসভা, গোয়ালের চর, গাইবান্দা,  চরগোয়ালীনী ও চরপুটিমারী ইউনিয়ন। মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর, শ্যামপুর, মেলান্দহ পৌরসভা, নাংলা, আদ্রা, ফুলকোচা, ঝাউগড়া, ও ঘোষেরপাড়া ইউনিয়ন। মাদারগঞ্জ উপজেলার গুনারীতলা জোড়খালী, বালিজুড়ি ও চর পাকেরদহ ইউনিয়ন। সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা, আওনা, পোগলদিঘা, সাত পোয়া ও কামরাবাদ ইউনিয়ন। বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুুরপাড়া, মেরুরচর, নিলক্ষিয়া ও বগারচর ইউনিয়ন। জামালপুর সদর উপজেলার লক্ষীরচর,তুলশিরচর ইউনিয়ন বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে।

এদিকে প্রবল পানির তুড়ে ভেঙ্গে গেছে জামালপুরের মাদারগঞ্জ- মাহমুদপুর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের লালডোবা গ্রামের ৫০ মিটার অংশ। এই অংশ দিয়ে প্রবল স্রোতে পানি প্রবেশ করে আশপাশের ১০টি গ্রাম নতুন করে প্লাবিত হয়ে পড়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কড়ইচুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বাচ্চু জানান, ১৫ জুলাই মাদারগঞ্জ-মাহমুদপুর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের লালডোবা গ্রামের অংশে পানির প্রবল চাপে তার ৫০ মিটার ভেঙ্গে যায়। ওই ধসে যাওয়া অংশে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করে আশপাশের প্রায় ১০টি গ্রামে পানি ঢুকে পড়ছে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করছে।

বন্যায় লন্ডভন্ড হয়ে গেছে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা।  দেওয়ানগঞ্জের চিকাজানী ইউনিয়নের মন্ডল বাজার অদুরে পাকা রাস্তাটি নদীতে বিলিন হচ্ছে।

এদিকে ইসলামপুর উপজেলার সাপধরী, বেলগাছা, চিনাডুলী, কুলকান্দি ইউনিয়নের যমুনার দ্বীপ চরের লোকজন নৌকার অভাবে তাদের ঘরের ধান চাল এমনকি গৃহপালিত পশু নিরাপদ স্থানে নিতে পারছে না বলে বেলগাছা ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক জানিয়েছেন।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষসহ গৃহপালিত পশু গরু,মহিষ, ছাগল হাঁস, মরগি পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। এসব এলাকায় বন্যা কবলিত মানুষ গুলো উচু বাঁধে,বিভিন্ন  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছে। বানভাসিদের শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধা পানির, গো খাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. নায়েব আলী বলেন, পূর্বের ৩১০ মে. টন জিআর চাল বিতরণ সম্পন্ন হয়নি। বিতরণ সম্পন্নের পর পুনরায় চাল বরাদ্দ দেয়া হবে। দুর্গত এলাকাগুলোতে ৫১টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এসব আশ্রয়কেন্দ্রে শুকনো খাবার সরবরাহে নগদ ৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

জামালপুরের জেলা প্রশাসক মো. এনামুল হক ত্রাণের বিষয়ে বলেন, পর্যাপ্ত ত্রাণ মজুদ রয়েছে। বরাদ্ধকৃত ত্রাণ দুর্গত এলাকায় বিতরণ শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল দুর্গত এলাকায় ত্রাণ পোঁছবে বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

নৌকা সঙ্কটে দুর্গতদের উদ্ধার বিষয়ে তিনি বলেন, ইসলামপুর ও দেওয়ানগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যমুনার দুর্গম এলাকাগুলোতে পর্যাপ্ত নৌকার ব্যবস্থা করে আটকে পড়া দুর্গতদের উদ্ধারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

 

শেয়ার করুন...

এই বিভাগের আরো খবর
Copyright By- সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102