শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
করোনাকালীন সময় মানুষের পাশে প্রবাসী বাংলাদেশি শারমিন রহমান এবং শেখ আরিফ রাব্বানি জামি বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের পাঁশে দাড়ালেন মেয়র নজরুল বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ড, ৭ লক্ষ টাকা ক্ষতি শারীরিক প্রতিবন্ধী নারীকে আর্থিক সহায়তা করলেন পুলিশ সুপার বকশীগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা রশীদ মাষ্টারের মৃত্যু, সর্ব মহলে শোক বকশীগঞ্জে সাংবাদিক পরিবারের উপর হামলাকারী রাসেলের জামিন নামঞ্জুর জামালপুর প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ জামালপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৭তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত জামালপুরে মুক্তিযোদ্ধার জমি অবৈধ ভাবে দখলের চেষ্টা বকশীগঞ্জে লক ডাউনে দোকানের ছবি তোলায় সাংবাদিকের উপর হামলা, হামলাকারী আটক

বকশীগঞ্জে টান টান উত্তেজনাঃ সংর্ঘষের আশঙ্কায় আতঙ্কিত মানুষ, অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ জুন, ২০২০
  • ৩১৬৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ ফেসবুকের স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন যাবত বকশীগঞ্জে চলছে টান টান উত্তেজনা। এই উত্তেজনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়ছে বকশীগঞ্জ পৌরবাসীসহ সাধারন মানুষ।
সংর্ঘষ এড়াতে বা পরিস্থিতি শান্ত করতে বকশীগঞ্জ পৌর শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়নের পাশাপাশি স্বাভাবিক পুলিশ টহল বাড়ানো হয়েছে।
গতকাল বুধবার সারাদিন বকশীগঞ্জ পৌর এলাকায় অতিরিক্ত ১ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন ছিল পাশাপাশি ছিল র‌্যাবের টহল।
জানাযায়, করোনার সংক্রমন রোধে বকশীগঞ্জ পৌর মেয়র এর নেতৃত্বে একটি স্বেচ্ছা সেবক কমিটি গঠন করা হয়। সাধারন মানুষকে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করন এবং সরকার ঘোষিত ৪টার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করাসহ বিভিন্ন কাজ করে যাচ্ছে। প্রতিদিনই বিকাল ৪টার পৌর মেয়র এর নেতৃত্বে স্বেচ্ছা সেবকেরা নিরাপদ দুরত্ব বজায় রেখে বাজারে বের হয়।
সাধারন মানুষকে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করন এবং সরকার ঘোষিত ৪টার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধকরতে বাধ্য করার নিমিত্ত্বে মেয়রসহ স্বেচ্ছা সেবকরা হাতে লাঠি নিয়ে বের হয়। এই ছবি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের ফেসবুক আইডি থেকে নিজেই পোষ্ট করলে মেয়রের সমর্র্থকদের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। চলে ফেসবুকে চালাচালি।


এক পর্যায়ে বকশীগঞ্জ পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক ও মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর এবং সাধুরপাড়া ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহামুদুল আলম বাবুকে নিয়ে ফেসবুকে কুটক্তি করা হয়। পরে মাহামুদুল আলম বাবুর ছেলে ও পৌর স্বেচ্ছা সেবক রিফাতের সাথে ফেসবুকেই বাক বিতন্ডা হয়।

বিষয়টি নিয়ে মোবাইল ফোনে চেয়ারম্যান বাবু ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের সাথে কথাকাটাকাটির জেরে মঙ্গলবার রাতে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। বুধবার স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান উভয় পক্ষকে আপোষ মিমাংসার জন্য ডাক দিলে ভাইস চেয়ারম্যান পক্ষ থেকে না করা হলে উত্তেজনা আরও ব্যাপক আকার ধারন করে। এখনো থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে বকশীগঞ্জে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষের আশঙ্কা করছে পৌরবাসী।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী উভয় পক্ষ মাঠ হিসাবে ফেসবুককে বেছে নিয়ে সেখানে চলছে একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমন পাল্টা আক্রমন।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102