বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫৪ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
মাদার তেরেসা গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্যানেল মেয়র সেলিনা আক্তার বকশীগঞ্জে যুবদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ধানের শীষের সাথে মিশে আছে যার জীবন, সেইতো আব্দুল্লাহ আল সাফি লিপন বকশীগঞ্জে রাতে চালু থাকা ড্রেজারে বালু উত্তোলন বন্ধ করলেন ওসি বকশীগঞ্জে পুজা মন্ডব প‌রিদর্শন ও নগদ অর্থ সহায়তা দিলেন মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর বকশীগঞ্জে মধ্যবয়সী নারী ধর্ষন, আটক-১ বকশীগঞ্জে যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার বকশীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটি বাতিল! দুই মামলায় রাশেদ চিশতির জামিন দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন অধ্যাপক সুরুজ্জামান

জামালপুরে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে কুটুক্তি, অবশেষে মিমাংসা, বিক্ষুব্ধ দলীয় নেতাকর্মীরা

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ৯২০ জন সংবাদটি পড়ছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ বাঙ্গালীর হৃদয়ের স্পন্দন, মহান স্বাধীনতার স্থাপতি বঙ্গবন্ধুর কন্যা, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কুটক্তি করার পর থানায় অভিযোগ দেয় এক আওয়ামীলীগ নেতা। পরে অজ্ঞাত কারণে সেই অভিযোগ প্রত্যহার করে নেওয়ার খবর জানাজানি হলে নেতাকর্মীদের মধ্য চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানাযায়, জামালপুর সদর উপজেলার গোপালপুর বাজারে বসবাসকারী ‘Milon Sarkar’ নামক ফেসবুক আইডি থেকে গত ০৮/০৪/২০২০ তারিখে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কুটুক্তি করে একটি স্ট্যাটাস দেন। এটি দেখার সাথে জামালপুর জেলা আওয়ামীলীগ থেকেও প্রতিবাদ করা হয়। জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক মো: সুরুজ্জামান তার ফেসবুক আইডি [‘SZaman Hossain’] এর টাইমলাইনে বিগত ০৯/০৪/২০২০ তারিখে একটি প্রতিবাদ দেন। সেই প্রতিবাদে তিনি সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের দায়িত্বশীল নেতাদের প্রতি এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আহবান জানান তিনি । তার আহবানে সাড়া দিয়ে বাঁশচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: আবুল খায়ের খোকা এই ঘটনায়বিক্ষুব্ধ হয়ে সেই ট্রলকারী ‘Milon Sarkar’ এর বিরুদ্ধে জামালপুর সদর উপজেলার নরুন্দী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে বিগত ১০/০৪/২০২০ তারিখে একটি এজহার দাখিল করেন।

এ ঘটনায় জেলা আওয়ামীলীগের সভায় যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক নাঈম রহমান এ বিষয়টি উপস্থাপন করলে তাৎক্ষনিকভাবে জামালপুর সদর আসনের এমপি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নরুন্দী তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নির্দেশও দেন।

জেলা আওয়ামীলীগ ও স্থানীয় সাংসদ সদস্য বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দিলেও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এদিকের আপোষ মিমাংসা হওয়ায় তৃনমুল নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

নরুন্দী তদন্ত ফাঁড়ির দায়িত্বরত পরিদর্শক (ওসি) সজিব রহমান জানান, এখানে মামলা নেওয়ার কোন এখতিয়ার নেই। অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে আমরা সদর থানায় পাঠিয়ে দিয়েছি। তিনি আরও জানান, অভিযোগটি রেকর্ড হওয়ার আগেই অভিযোগকারী আপোষ হয়ে আপোষ নামা দিয়ে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন।

এ বিষয়ে জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো: সুরুজ্জামান জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনার সম্মানের প্রশ্নে আপোষ করার কোনই সুযোগ নেই। যদি তিনি অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন তবে এটি হবে দলের সাথে বেঈমানী করার সামিল। আর এসব বেঈমানদের দলের দায়িত্বে রাখা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102