জামালপুরে করোনা রোগী তল্লাশির নামে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ, রহস্য উন্মোচন করল পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরে করোনা রোগী তল্লাশির নামে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ ঘটনায় রহস্য ‍উন্মোচন করেছে পুলিশ।

জামালপুর পুলিশ সুপার (এসপি) দেলোয়ার হোসেন রাতে জানান, পুলিশি পরিচয়ে করোনা তল্লাশির নামে খবর প্রকাশিত হওয়ার পর মেয়ের বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারি, তিনি সৎ বাবা, বাড়িতে আসর বসিয়ে গাঁজা সেবন করতেন। সেদিনও বাড়ির পাশে ওই ৫ যুবক নিয়ে মেয়েটির বাবা গাঁজা সেবন করতে ছিলেন। মাঝখানে মিজান ও পুশন নামে দুই যুবক আসর থেকে উঠে গিয়ে পানি খেতে যায় তাদের ঘরে। মেয়েটি পানি দিতে আসলে মিজান ও পুষন জোরপুর্বক বাড়ির পাশে বেগুনের খেতে নিয়ে ধর্ষন করে। মিজান ধর্ষন করলে পুষন পাহাড়া দেয় এই ছিল ঘটনা।

মেয়েটির বাবা নিজের দোষ আড়াল করতে পুলিশ পরিচয়ে করোনা তল্লাশির নামে ঘরে ঢুকে তুলে নিয়ে ধর্ষন করার কথা সাংবাদিকদের বলেছে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, ডাক্তারি রিপোর্ট, এলাকায় তদন্ত ও গ্রেপ্তারকৃত আসামী মিজানের রিমান্ড মঞ্জুর হলে প্রকৃত ঘটনা বের করতে পারবো। উর্ধতন কর্তপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিচার সম্পন্ন করার চেষ্টা করব।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে মামলার সর্বশেষ অগ্রগতি ও প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন জামালপুরের পুলিশ সুপার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

     এই বিভাগের আরো খবর
ব্রেকিং নিউজঃ