মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১১:২১ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
দুই মামলায় রাশেদ চিশতির জামিন দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন অধ্যাপক সুরুজ্জামান বকশীগঞ্জে পৌর আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের সংর্ঘষ ।। আহত অর্ধশতাধিক বকশীগঞ্জে নারী ও শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর বকশীগঞ্জে এসডিজি অর্জনে জেলা নেটওয়ার্কের ষান্মাসিক সভা অনুষ্ঠিত সরিষাবাড়ীতে পুকুরে ডুবে ভাই বোনের মৃত্যু বকশীগঞ্জে ইলিশ রক্ষায় নিজেই মাঠে নামলেন ইউএনও মুনমুন জাহান লিজা জামালপুরে সাত দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহ শুরু বকশীগঞ্জে উপজেলা পরিষেদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

বকশীগঞ্জে এলজিইডি অফিসের লাগামহীন দুর্নীতি

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১০ মার্চ, ২০২০
  • ৩৬৪ জন সংবাদটি পড়ছেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) কার্যালয়ে লাগামহীন দুর্নীতিতে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড চরমভাবে বিঘিœত হচ্ছে। বর্তমান উপজেলা প্রকৌশলী এসএম শহিদুল ইসলাম গত বছর সেপ্টম্বর মাসের ৮ তারিখে তিনি বকশীগঞ্জ যোগদানের পর থেকেই দুর্নীতি আর অনিয়ম এখানে নিয়মে পরিণত হয়েছে।
দক্ষিণ কুশলনগর একটি রাস্তা সংস্কারে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পরেও তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি উল্টো সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে কাজের জন্য বিল অনুমোদন করেছেন। বর্তমানে এটি জেলা স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল বিভাগে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ১৩ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ব্যায়ে টানা ব্রীজ জিরো পয়েন্ট থেকে কুশলনগর উত্তর পাড়া পর্যন্ত ৭৫০ মিটার রাস্তা সংস্কার কাজ শেষ হয়। শেষ হওয়ার ৩দিনের মধ্যে রাস্তা থেকে পাথর উঠতে শুরু করেছে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বরাদ্দকৃত এলজিএসপি ও কাবিখাসহ অন্যান্য প্রকল্পের আওতায় রাস্তাটি নির্মাণ ও সংস্কার করে চলাচলের উপযুগি থাকলেও বর্তমানে রাস্তার উপর দিয়ে নি¤œ মানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে সংস্কার করায় রাস্তাটি দিয়ে চলাচর করতে অসুবিধা হচ্ছে।
এই রাস্তার পাশেই অবস্থিত কুশলনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানান, রাস্তাটি দিয়ে খালি হাটা যায়। পায়ের সাথে পাথর উঠে আসে। সেন্ডল দিয়ে পা দিলে সেন্ডেলের সাথে পাথর উঠে আসে।
স্থানীয় বাসিন্দারাও একই অভিযোগ করেন। তারা জানান, ১৫ মিলি করে পাথর দেওয়া কথা থাকলেও সেখানে মাত্র ৮/১০ মিলি করে পাথর ব্যবহার করা হয়েছে। সংস্কার করার আগেই ভাল অবস্থাই ছিল রাস্তাটি।
এদিকে একই ঠিকাদারের পশ্চিম কামালের বার্তী জামে মসজিদে অনিয়মের অভিযোগ দিলে এখানেও তিনি ঠিকাদারের পক্ষালম্বন করেন। ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পরিবর্তে তিনি টাকার ছাড়পত্র দিয়েছেন।
বিষয় গুলো নিয়ে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে এই বিষয়ে তিনি জানান, মসজিদের কাজ খুব উন্নত মানের হয়েছে, এখানে কোন অনিয়ম বা দুর্নীতি হয়নি।
মসজিদ নিয়ে তিনি আরও বলেন ‘‘আগে ভেঙ্গে পড়–ক তারপর ব্যবস্থা নিব।’’
স্থানীয়ভাবে জানা যায়, সাধুরপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম কামালেরবার্তী জামে মসজিদের সংস্কারের স্থানীয় মুসুল্লীরা এমপি আবুল কালাম আজাদের নিকট দাবী করেন। দাবী মুখে এমপি আবুল কালাম আজাদ স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তরে নির্দেশ দিলে মসজিদ সংস্কারের জন্য ৩ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার এই প্রকল্পের অনুমোদন করা হয়। সেই মোতাবেক সংস্কারের জন্য দরাপত্রও আহবান করা হয়। বিধি মোতাবেক মসজিদটি সংস্কারের জন্য মনোনিত হয় সরিষাবাড়ীর মের্সাস নিবাল এন্টারপ্রাইজ। বিশ্বস্থসুত্রে জানাযায়, নির্মাণ কাজ শুরুতেই ৩৪% কমদিয়ে (লাভ দিয়ে) ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটির নিকট হতে কাজটি কিনে নেয় দেওয়ানগঞ্জের বিপ্লব নামে এক ঠিকাদার। চড়া মুল্যে কিনে নেওয়া মসজিদ সংস্কার প্রকল্পটি নি¤œমানের সামগ্রী নির্মাণ ও নকশা বহির্ভুতভাবে সংস্কার করার অভিযোগ করে স্থানীয়রা।
সরজমিনে দেখা যায়, মসজিদটিতে টিনের ছাউনি (চাল) নির্মাণের সামনে ৫ মিলি এ্যাংগেল ব্যবহারের কথা থাকলে সেখানে মাত্র ৩ মিলি এ্যাংগেল ব্যবহার করা হয়েছে। ছাউনি রয়েছে খুবই সংকৃীণ হওয়ায় দুই পার্শ্বের দেওয়া রয়েছে অরক্ষিত। বৃষ্টি আসার সাথে সাথে পানিতে দেওয়াল ভিজে যায়। এছাড়া প্রকল্পটিতে এ্যাংগেল খুব কম ব্যবহার করা হয়েছে।
ডাবল এ্যাংগেল ব্যবহার করার কথা থাকলেও দায়সারাভাবে বিদ্যুতিক ঝালাই জোড়া লাগিয়ে ব্যবহার করা হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানায়। মসজিদের টিন স্থাপনের সময় ১ফিট ভেঙ্গে ঢাইল করে হুক ব্যবহার কথা থাকলেও সেটি মাত্র ড্রিল মেশিন দিয়ে ছিদ্র করে স্থাপন করা হয়েছে। ফলে সামন্য বাতাসেই টিনের চাল উড়ে যাবে, এছাড়া মসজিদটি রঙ এর কাজও রয়েছে নকশাতে কিন্তু সেটিও করেনি। এ ব্যাপারে স্থানীয় সাধুরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বাবুল হোসেন জানান, প্রথম থেকেই এই কাজটি নিয়ে অভিযোগ ছিলো। কিন্তু ঠিকাদার আমাদের কোন কথা কর্ণপাতই করেনি।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102