সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগঞ্জে ব্রীজ নির্মাণে পুকুর চুরি, ধ্বসে পড়ার আশংকা

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৭০৮ জন সংবাদটি পড়ছেন

সুমন সওদাগরঃ জামালপুরের বকশীগঞ্জে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়ের অধিনে ৩৬ মিটার দৈর্ঘ ৮টি সেতু নির্মিত হচ্ছে। ২০১৯-২০ অর্থ বছরে বকশীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের মহির উদ্দিনের বাড়ীর পিছনে খালের উপর একটি ব্রীজ নির্মাণের কাজ পায় মের্সাস দৌলত এন্টারপ্রাইজ। ব্রীজটির কার্যাদেশ মুল্য ধরা হয় ৩০ লক্ষ ৭৯ হাজার ৪৬৩ টাকা। গত বছর ২০ নভেম্বর ব্রীজটি নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও চলতি বছর জানুয়ারীতে নির্মাণ কাজ শুরু করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি।
নির্মাণ কাজ শুরু থেকেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটির নিম্ন মানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করে ব্রীজটি নির্মাণের অভিযোগ করলেও স্থানীয়দের অভিযোগ আমলেই নিচ্ছে না ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি।
শুধু তাই নয় বন্যা কবলিত এই এলাকাটিতে ব্রীজ নির্মাণে পাইলিং ও ড্রপ ওয়াল নির্মাণে বেশ সর্তকতা অবলম্বন করার প্রয়োজনীয়তা অনুধাবন করে ব্রীজ নকশা প্রণায়ন করে স্থানীয় প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস। এই নকশাও যথাযথভাবে ভাবে অনুসরণ না করারও অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে।

ব্রীজ নির্মানে নিম্নমানের বালু

সরজমিনে অভিযোগের সত্যতা শতভাগও পাওয়া যায়। ব্রীজ নির্মাণ ব্যবহৃত বালি, পাথরও অত্যন্ত নিম্নমানের। রড ব্যবহারের রয়েছে ব্যাপক অনিয়ম।
ব্রীজটি টিকসই করার লক্ষ্যে নকশা অনুযায়ী ড্রপ ওয়ালে ৪ফিট দৈর্ঘ হয়ে মাটির নিচে যাওয়ার থাকলেও তাতে করা হয়ে মাত্র দেড় ফিট। নকশা অনুযায়ী প্রসস্থ ৮ ইঞ্চি করার নিয়ম থাকলেও করা হয়েছে মাত্র ৫ ইঞ্চি। এসব অনিয়ম ঢাকাতেই তরিঘরি করে ঢালাই দেওয়ার অভিযোগ করে স্থানীয়রা।
এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা লিপন ও সোহেলসহ বেশ কয়েকজন বাধা দিলেও কাজে আসেনি।
এ বিষয়ে লিপন মিয়া জানান, ব্রীজ নির্মাণ প্রথম থেকে এরা বিভিন্ন অনিয়ম করে আসছে। ব্রীজে রড কম দেওয়া হয়েছে। যেসব রড দেওয়ার কথা ছিলো সেগুলি সঠিকভাবে না দিয়ে তুলনামুলক চিকন রড দেওয়া হয়েছে।
সোহেল মিয়া জানান, বাধা দিলেও আমাদেরকে হুমকি দেওয়া হয়। এভাবে ব্রীজটি নির্মাণ করলেও কমসময়ের মধ্যে ধ্বসে পড়বে।
এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাহাবুব হাসান খানের সাথে যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

ব্রীজ নির্মাণের অনিয়মের খবর আরও আসছে.. চোখ রাখুন

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102