শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:০২ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগঞ্জে যত্রতত্র ব্যবহার হচ্ছে নাইট্রিক এসিড, হুমকির মুখে জনস্বাস্থ্য

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৭৪৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

সুমন সওদাগরঃ বকশীগঞ্জে পৌর এলাকায় অবাধে যত্রতত্র ব্যবহার হচ্ছে বিষাক্ত নাইট্রিক এসিড। যার বিষাক্ত ধোয়া জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ। এর পরিণতি দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। স্বর্ণালংকার তৈরীর কাজে দোকানীরা এই নাইট্রিক এসিড ব্যবহার করে। যা দোকানীসহ আশে পাশের জন সাধারনের মানব দেহের ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। এক্ষেত্রে পৌর প্রশাসন সহ উপজেলা প্রশাসন নিবর। দ্রুত হস্তক্ষেপ চায় পৌরবাসী।

সরেজমিন দেখা যায়, বকশীগঞ্জ পৌরশহরে প্রাণ কেন্দ্র বকশীগঞ্জ পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড, দক্ষিণ বাজার ও মধ্যবাজারে গড়ে উঠেছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি আকারের স্বর্ণের দোকান। এসব দোকানে কোন নিয়ননীতির তোয়াক্কা না করেই বেআইনিভাবে প্রকাশ্যে এই বিষাক্ত নাইট্রিক এসিড ব্যবহার করা হচ্ছে।
এসিড ব্যবহারের নিয়ম থাকলেও তা মানছে না কেউই। এটি ব্যবহারের জন্য আলাদা কক্ষ ও চিমনি ব্যবহার করার বিধি থাকলেও অধিকাংশ দোকানে তা দেখা যায়নি। ফলে উন্মুক্ত অংশে নাইট্রিক এসিড ব্যবহারে তা জনসাধারণের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অবাধে নাইট্রিক এসিড ব্যবহার হওয়ায় এই এসিডের বিষাক্ত ধোঁয়ায় সাধারণ মানুষ শ্বাসকষ্ট ও হাঁপানিসহ নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিনিয়িত।

এ বিষয়ে নিউ মাতৃ জুয়ালার্সের মালিক উৎপল মহন্ত জানান, অলংকার বানানোর জন্য আমরা নাইট্রিক এসিড ব্যবহার করতে হয়। এটা আমরা অতি সাবধানতার সহিত ব্যবহার করি, যাতে অন্যের ক্ষতি না হয়।

বকশীগঞ্জ স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ আবু হাসান শাহিন বলেন, নাইট্রিক এসিড একটি সক্রিয় খনিজ এসিড। এই এসিডের বিষাক্ত ধোঁয়ায় সাধারণ মানুষ শ্বাসকষ্ট ও হাঁপানিসহ বিভিন্ন ধরনের রোগে আক্রান্ত হতে পারে। সেজন্য উন্মুক্ত স্থানে না করে আলাদা কক্ষ বা চেমনির মধ্যে ব্যবহার করতে হয় যাতে এসব ধোয়া

বকশীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর জানান, দ্রুতই এসব স্বর্ণের দোকান চিহ্নিত করে এসব ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই সমস্ত স্বর্ণ কারিগরদের জন্য শহর এলাকার বাহিরে তাদের কারখানা স্থাপনসহ এই নাইট্রিক এসিড ব্যবহারের উপর শর্তারোপ করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নীতিনির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে ভুক্তিভোগিরা।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102