ইসলামপুরে দেহ বিহীর মাথা উদ্ধার, মেলান্দহে মস্তকবিহীন লাশ

রোকনুজ্জামান সবুজঃ জামালপুরের ইসলামপুরে থেকে দেহ বিহীর মাথা উদ্ধার হয়েছে, মেলান্দহে বহুল আলোচিত মস্তকবিহীন লাশ।অবশেষে এই মৃতদেহের পরিচয় মিলেছে। নিহত মরদেহটি ইসলামপুর উপজেলার সভুকুড়া গ্রামের ইয়াজ উদ্দিনের ছেলে হাসেন আলীর বলে জানা গেছে। শনিবার বেলা ১১টার দিকে মেলান্দহের কাঙ্গালকুর্শা আইটিসিএলের পাশে ব্রহ্মপুত্র নদীতে মস্তকবিহীন লাশ ভাসতে দেখে এলাকাবাসি পুলিশে খবর দেয়। অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম জানান-অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। ওদিকে একই দিন দুপুরে দিকে ইসলামপুর উপজেলার চরচারিয়া এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদীতে দেহবিহীন মস্তক পানিতে ভাসতে দেখে স্থানীয়দের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ইসলামপুর থানা পুলিশ খন্ডিত মস্তক উদ্ধার করে।
ইসলামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আল মাহমুদজানান-মেলান্দহে মস্তক বিহীন দেহ এবং ইসলামপুর থেকে খন্ডিত মস্তক উদ্ধারের খবরটি জানাজানি হয়। এরপর ইসলামপুর উপজেলার সভুকুড়া গ্রামের নিখোঁজ হাসেন আলীর স্বজনরা ছুটে এসে মৃত দেহ এবং মস্তক দেখে লাশ সনাক্ত করেন। এ সময় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা ঘটে। নিহত হাসেন আলীর ছেলে রইসুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন-তার বোন হাসিনা বানুর (২৫) সাথে ভগ্নিপতি খুরশেদ আলী (৩০)’র দাম্পত্ব কলহ চলছিল। এ নিয়ে মোকদ্দমা চলছে। জামতা খুরশেদ তার শ্বশুর হাসেন আলীকে হত্যার হুমকী দিয়ে আসছিল।খুরশেদ আলী উত্তর সভাকুড়া গ্রামের ইনছান আলীর ছেলে। তাদের ঘরে ৩ সন্তান আছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ইসলামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সর্বশেষ খবরে নিশ্চিত করে বলেন- এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে,শ্বশুর-জামতার মধ্যে বিরোধের জের ধরে হত্যাকান্ড ঘটতে পারে। নিহত হাসেন আলী গত ২ আগস্ট থেকে নিখোঁজ ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

     এই বিভাগের আরো খবর
ব্রেকিং নিউজঃ