রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৫০ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :

সাংবাদিক নির্যাতনের পূণ্যভুমি বকশীগঞ্জ-১

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৩ জুন, ২০১৯
  • ১০৫৪ জন সংবাদটি পড়ছেন

গোলাম রাব্বানী নাদিম ॥ সাংবাদিক নির্যাতনের পূন্যভুমিতে পরিণত হয়েছে বকশীগঞ্জ। এর অন্যতম কারণ হচ্ছে সাংবাদিকদের অভ্যন্তরিন কোন্দল, নির্যাতনকারী ব্যাক্তিদের প্রতি সাংবাদিকদের বিশেষ দুর্বলতার, জেলা উপজেলায় একাধিক সাংবাদিক সংগঠনের কারণে খুব সহজেই নির্যাতনকারীরা পার পেয়ে যায়।
নির্যাতন শুরু হয় জামালপুরের বকশীগঞ্জ থেকে। এই উপজেলায় সাংবাদিক নির্যাতনের হার অন্যান্য উপজেলা ও জেলার তুলনায় অনেক বেশি।
সাংবাদিক রনি থেকে শুরু, বিদ্যুৎ নিয়ে সাংবাদ পরিবেশন করে মিথ্যা মামলা ও নির্যাতনের পর এলাকা ছেড়েছেন রনি। পরে একের পর মিথ্যা মামলা, পুলিশ ও সরকারী দলের ক্যাডারদের হাতে মারধরের শিকার হয়েছে প্রায় আধা ডজন সাংবাদিক।
সাংবাদিক রনি, আব্দুর রাজ্জাক, সরওয়ার জামান রতন, এইচ এম মুসা আলী, শাহীন আল আমিন, গোলাম রাব্বানী নাদিমসহ সকলেই হামলার শিকার ও বেশ কয়েকজন মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন।

এর মধ্যে সাংবাদিক নির্যাতনকারীদের মধ্যে শীর্ষ রয়েছেন দুর্নীতির ও ক্ষমতার অপব্যবহারের দায়ে বর্তমানে পুত্রসহ কারাগারে থাকা বাবুল চিশতি।
এই বাবুল চিশতি গত ৫ বছরে যুগান্তর প্রতিনিধি সরওয়ার রতন, ঢাকা প্রতিদিনের সম্পাদক মঞ্জুরুল বারী নয়ন, ঢাকা প্রতিদিনের নিজস্ব প্রতিবেদক এ.কে, ফেরদৌস, সাংবাদিক এইচ এম মুসা আলী ও সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক ক্ষতি সাধন করেছেন।

এর আগে বিখ্যাত গতিধরা প্রকাশনীর প্রকাশক শিকদার আবুল বাশার ও জামালপুরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস গ্রন্থের লেখক রজব বকশীর বিরুদ্ধেও মামলা করে বাবুল চিশতি। যদিও এই মামলাটি প্রমান ও স্বাক্ষীর অভাবে শেষ পর্যন্ত খারিজ হয়ে যায়।
যুগান্তরের সাংবাদিক সরওয়ার রতনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের এর চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত আমলে নেয়নি আদালত।

বর্তমানে বাবুল চিশতির মামলায় বকশীগঞ্জের দুই সাংবাদিক এইচ এম মুসা আলী ও গোলাম রাব্বানী নাদিম প্রতিমাসেই ঢাকা সাইবার ক্রাইম ট্রাইবুনালে হাজিরা দিতে হয়। এতে শুধু অর্থই অপচয় হয় না, সময় ও জীবনের ঝুকি রয়েছেই।

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলায় বাবুল চিশতির  পিছনে সবসময়ই কলকাঠি লেড়েছেন তারই পালিত একজন নামধারী সাংবাদিক। । শুধু কলকাঠিই নেড়ে ক্ষান্ত হননি মামলা গুলোর অন্যতম স্বাক্ষীই হয়েছেনও তিনি। আদালতে ও বিভিন্ন জায়গায় স্বাক্ষী পাকাপোক্ত করার জন্য এই সাংবাদিককে হজ্ব করিয়ে এনেছেন বাবুল চিশতি  । দুর্নীতি দায়ে বাবুল চিশতি জেলে যাওয়ার পর তার পালিত এই স্বাক্ষী গোপাল কিছুটা ঝিমিয়ে পড়ায় বকশীগঞ্জের সাংবাদিকমহল অনেকটাই স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়ছেন। … চলবে

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102