Blog Image

ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতির প্রতিবাদ

গোলাম রাব্বানী নাদিমঃ সম্প্রতি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) বকশীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলসহ পৌর ছাত্রদল ও কলেজ ছাত্রদলের কমিটি প্রকাশ নিয়ে প্রতিবাদ করেছে বকশীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাসেল সরকার।


মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খাদ্য গোদাম সংলগ্ন বকশীগঞ্জ বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সামনে তিনি কমিটি বিষয়ে প্রতিবাদ করেন।
এ সময় তিনি বলেন, বকশীগঞ্জ ছাত্রদল অত্যন্ত মজবুত। আমরা নেতাকর্মীদের নিয়ে বিগত আন্দোলনে মুল দলের সহযোগী হিসাবে কাজ করে আসছি। সরকারী দলের মদদে ছাত্রদলের ঐক্য বিনিষ্ঠ করার জন্য কতিপয় ব্যক্তি অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ২০১৬ সালে ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক এই কমিটি অনুমোদন দেন এবং আগামী নির্বাচন পর্যন্ত এই কমিটিই বিদ্যমান থাকবে। অতীতেরমত আগামীতে সরকার পতন আন্দোলনে এই কমিটিই অগ্রানী ভুমিকা পালন করবে।


এ সময় জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সোহেল রানা খান মোবাইলের লাউড স্পীকারে সাংবাদিক ও নেতাকর্মীদের জানান, জেলা ছাত্রদল থেকে নতুন করে কোন কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়নি। সে কারণে রাসেল সরকারকে সভাপতি করে যে কমিটি রয়েছে সেটিই বলবৎ রয়েছে।
যারা এ ধরনের কর্মকান্ডের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও জানান ছাত্রদলের জেলার এই সভাপতি।
এ সময় ছাত্রনেতা মশিউর রহমান রাসেল, লাহোর, ফিরোজ কবির, আল মামুন, আল আমিন, ইমরান হোসেন, মইন সরকারসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বকশীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি হয়েছে মর্মে ব্যাপক প্রচারনা চলনা হয়। ফেসবুকে সাবেক এমপি এম রশিদুজামান মিল্লাত ছাত্রদলের কমিটি দিচ্ছেন এ ধরনে একটি ছবিও পোষ্ট করা হয়েছে বিভিন্ন ফেসবুকের আইডি থেকে। এ নিয়ে পুরো বকশীগঞ্জে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। কমিটি অনুমোদনের বিষয়টি জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক ওমরুজ্জামান দর্শণ চৌধুরী কমিটি অনুমোদনের বিষয়টি স্বীকার করায় উত্তেজনা আরও বৃদ্ধি পায়। তবে বরাবরই জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সোহেল রানা খান ছাত্রদলের কমিটি বিষয়ে গুজব বলে উড়িয়ে দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

[custom_share_link]

এ ধরনের আরও খবর