বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ১১:১৫ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
দুই মামলায় রাশেদ চিশতির জামিন দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন অধ্যাপক সুরুজ্জামান বকশীগঞ্জে পৌর আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের সংর্ঘষ ।। আহত অর্ধশতাধিক বকশীগঞ্জে নারী ও শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর বকশীগঞ্জে এসডিজি অর্জনে জেলা নেটওয়ার্কের ষান্মাসিক সভা অনুষ্ঠিত সরিষাবাড়ীতে পুকুরে ডুবে ভাই বোনের মৃত্যু বকশীগঞ্জে ইলিশ রক্ষায় নিজেই মাঠে নামলেন ইউএনও মুনমুন জাহান লিজা জামালপুরে সাত দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহ শুরু বকশীগঞ্জে উপজেলা পরিষেদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

জামালপুর-০২, ইসলামপুরে মনোনয়ন যুদ্ধ! শেষ হাসি কি বেবির?

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ১৯৫১ জন সংবাদটি পড়ছেন

নারায়ন মোদক, ইসলামপুর থেকেঃ জামালপুর-০২, ইসলামপুর, জমে উঠেছে নির্বাচন। নির্বাচনে যত ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের মধ্যে উত্তেজনা তত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ আসনে আওয়ামীলীগের আধা ডজন প্রার্থী থাকলেও বর্তমানে মনোনয়ন ২জন এমপির মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে বলে আওয়ামীলীগের সমর্থকদের ধারণা।

দুজনের মনোনয়ণ যুদ্ধ বেশ উপভোগ করছেন এলাকার ভোটাররা। মাহাজাবিন খালেদ বেবি সংরক্ষিত আসনের এমপি হাওয়ার পর থেকেই এলাকায় যাতায়াত করছেন বেশি বেশি। রাজনৈতিক পরিবারের বড় হওয়া বেবি বিগত বছরে তার সফলতার আলো ছড়িয়ে দিয়েছেন এলাকার মানুষের মাঝে। ইতিমধ্যে সাধারন ভোটারদের কাছাকাছি যেতে সামর্থ হয়েছেন। বিশেষ করে নারী ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় এই নেত্রী বর্তমানে ইসলামপুর মানুষের মনিকোঠায় স্থান পেয়েছেন

মুক্তিযুদ্ধে নম্বর সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল খালেদ মোশারফ বীরোত্তমের সন্তান মাহজাবিন খালেদ দলের প্রবীণ ত্যাগীনেতাকর্মীসহ সকল নেতাকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। প্রায় বছর ধরে তিনি গনসংযোগ করে যাচ্ছেন নিরলশভাবে

বিষয়টি সুনজরে দেখছেন না বর্তমান সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খাঁন দুলাল  তার সমর্থকরা। এই নিয়ে দুই সংসদ সদস্য সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করেছে

এদিকে আওয়ামীলীগের একটি অংশ নাম প্রকাশ না করার শর্ত দিয়ে জানান, এমপি ফরিদুল হক দুলাল দলের ত্যাগী নেতাদের এক অংশ জামাতকরণ স্বজনপ্রীতির অপবাদ দিয়ে দুরে সরে দিয়েছেন

বর্তমান এম পিফরিদুল হক খাঁন দুলাল বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন বলে যে দাবি করেন তা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা. প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতির অংশ বলে দাবী করেন স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা

দলীয় নেতাকর্মীদের মুল্যায়ন না করে জামায়াত বিএনপিদের দলে ভীরিয়ে তাদের দলের ভালো জায়গায় স্থান করে পুর্নবাসন সহ বিভিন্নদিকও তুলে ধরেন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

সংসদ সদস্য হয়েও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদ নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়ে সভাপতি হয়েছেন এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল। ফলে আওয়ামীলীগের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি করে হয়েছে উল্লেখ করে উপজেলা আওয়ামীলীগের এক নেতা জানান, এমপি হয়েও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির পদের লোভ সামলাতে পারেন না এমপি দুলাল। তার এই লোভ আগামী নির্বাচনে তাকে বেশ ভোগতে হবে কারণে বর্তমান এমপি দুলাল দলীয় ভাবে বেশ চাপের মধ্যে রয়েছেন

সম্প্রতি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদ নিয়ে দ্বন্দ্ব আর মুক্তিযোদ্ধাকে মারধোর ঘটনায় এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল অনেকটাই বেকফুটে। ইসলামপুর উপজেলার প্রায় সমস্ত মুক্তিযোদ্ধাই তার বিপক্ষ অবস্থান নিয়েছে। এছাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল ছালাম ও তার লোকজনের সাথে সর্ম্পক এখন সাপে নেউলে। সাবেক সভাপতি জিয়াউল হক জিয়ার সাথে সর্ম্পক দা- কুড়াল। পৌর মেয়র আব্দুল কাদের শেখও তার পিছে নেই। এমতাবস্থায় ফরিদুল হক দুলাল মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচনে অংশ নিলে আওয়ামীলীগের আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত ছাড়া আর কিছুই নয় বলে মনে করে তৃণমুলে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।


এদিকে ক্লিন ইমেজধারী মাহাজাবিন খালেদ বেবি এমপি রয়েছেন বেশ সুবিধাজনক স্থানে। আওয়ামীলীগের কোন্দল নিরসন করে দলের মধ্যে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে এনে আওয়ামীলীগের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে তিনি চেষ্টা করে যাচ্ছেন মাহাজাবিন খালেদ বেবি

একদিকে স্বাধীনতার স্বপক্ষ শক্তি হিসাবে পরিচিত মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে কে-ফোর্সের অধিনায়ক খালেদ মোশারফরে কন্যা মাহাজাবিন খালেদ বেবী এমপি। অপরদিকে বর্তমান এমপি ফরিদুল হক দুলাল।
এদিকে মুক্তিযোদ্ধা কন্যা একের পর এক গণসংযোগ, উঠান বৈঠক স্থানীয় ও জেলাময় উন্নয়ন তাকে পুরো জামালপুরে মীর্জা আজমের পরপরই তার অবস্থান। এমতাবস্থায় শুধু জামালপুর-০২( ইসলামপুরই) নয়, জেলার ৫টি আসনের মধ্যে যে কোন আসনেই নির্বাচন করে উঠে আসার একটা অবস্থান তৈরী করেছেন বলে তার সমর্থকরা জানান। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামীলীগের সিদ্ধান্তনুযায়ী নারী প্রার্থীর ক্ষেত্রে অগ্রাধীকার বিষয়ে সিদ্ধন্তের কারণে মাহাজাবিন খালেদ বেবি অনেকটা এগিয়ে। সে কারণে শেষ হাসিটা যে মাহাজাবিন খালেদ বেবির এটা অনেকটা নিশ্চিত বলে মনে করেন বেবির সমর্থকরা।

বিষয়ে মাহাজাবিন খালেদ বেবি বলেনআমি ক্ষমতা লাভের জন্য রাজনীতি করি না, রাজনীতিতে এসেছি মানুষের কল্যাণ করতে  ক্ষমতার লোভ আমার পরিবারের মধ্যে নেই। ইসলামপুরের অবহেলিত মানুষের জন্য  আমি দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে যাচ্ছি। প্রত্যন্ত অঞ্চলে হেঁটে বা নৌকায় গিয়ে সাধারণ খোঁজ নিচ্ছি।এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখছি সাধ্যমতো অংশ নিচ্ছি দলের কর্মকান্ডে

ইসলামপুর উপজেলা ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত জামালপুর-২ আসনের মোট ভোটার সংখ্যা-২ লাখ ২০ হাজার ৮৮৯ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১১ হাজার ১০৫ এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯ হাজার ৭৮৪ জন।

আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে কে হাসবে শেষ হাসি এখন শুধু অপেক্ষার পালা।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102