সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ১১:২৭ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English

বকশীগঞ্জে কামালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামালকে গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৮
  • ১৮৬৫ জন সংবাদটি পড়ছেন




বিশেষ প্রতিনিধিঃ  জামালপুরের বকশীগঞ্জে ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের অতি দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফ এর চাউল কালো বাজারে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমান চাউলও উদ্ধার করা হয়েছে।ভিজিএফ এর চাউল না পেয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে দুঃস্থ ও চাউল বঞ্চিতরা। মানববন্ধনে চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামালসহ এ ঘটনায় জরিতদের গ্রেফতারও দাবি করা হয়েছে।
শনিবার দুপুর ৩টার দিকে জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নে মির্ধাপাড়া মোড়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে প্রায় চাউল বঞ্চিত ২ শতাধিক নারী পুরুষ অংশ নেয়।
মানববন্ধনে হৃত দরিদ্র জমিরন, ধলাফুল, সুরুফজান, আবেদা, আব্দুল করিম, ফুলে বেগম হালিমাসহ অনেকই অভিযোগ করে বলেন, আমাদের কার্ড দেওয়া হয়েছে নির্ধারিত সময়ে আমরা চাউলের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের গেলে আমাদের জানানো হয় চাউল বিতরণ শেষ হয়েছে। আমরা চাউল না পেয়ে সেখান থেকে ফিরে এসেছি।
আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মোকারেস খোকন জানান, কামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামাল দুদকের মামলায় আটক বাবুল চিশতির শ্যালক। চিশতি ও মোস্তুফা কামালের নামে বিপুল পরিমান সম্পদ থাকায় দুদকের হাতে গ্রেফতার এড়াতে গা ঢাকা দিলেও তার মনোনিত আনু নামে এক ব্যক্তির সহয়তার তার নামে বরাদ্দকৃত কার্ড কালো বাজারে বিক্রি করেছে। এছাড়া সরকারের বদনাম সৃষ্টির করার অপচেষ্টায় আওয়ামীলীগের নামে বরাদ্দ কার্ড প্রাপ্ত হৃত দরিদ্রদের চাউল দেয়নি।

অভিযানে উদ্ধারকৃত চাউল

উপজেলা প্রকল্প বস্তাবায়ন কর্মকর্তার অফিস সুত্রে জানা গেছে, বকশীগঞ্জ উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নে ভিজিএফ এর ৪ হাজার ১৫৯ জন হৃতদরিদ্রদের মাঝে ৮৪ মেঃটন চাউল বরাদ্দ করা হয়।
এতে উপজেলা পরিষদের জন্য- ৪০০, সরকারী দল আওয়ামীলীগের জন্য- ৮০০ ও ইউনিয়ন পরিষদের জন্য ২ হাজার ৯৫৯টি বরাদ্দ করা হয়।
ইউনিয়ন পরিষদের জন্য ৯টি ইউপি সদস্যের জন্য প্রতিজনের ১৪৫টি করে ১ হাজার ৩০৫ ও ৩টি মহিলা সদস্যাকে প্রতিটি ১৬৫ টি করে ৪৯৫টি বরাদ্দ করা হয়। বাকী ১ হাজার ১৫৯টি ভিজিডি কার্ড স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামাল বিতরণ করার কথা রয়েছে।
ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামাল এক ইউপি সদস্যকে মৌখিকভাবে দায়িত্ব হস্তান্তর করে দীর্ঘদিন যাবত অনুপস্থিত রয়েছেন। চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামাল মৌখিকভাবে দায়িত্ব হস্তান্তর করলেও এসব কার্ড তার মনোনিত লোক দিয়ে কালোবাজারীদের কাছে বিক্রি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
এ বিষয়ে বর্তমান প্যানেল চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন জানান, চেয়ারম্যান আমার নিকট কোন দায়িত্ব হস্তান্তর করেনি। তার অনুপস্থিতে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করি মাত্র। চেয়ারম্যানের নামে ভিজিডি কার্ডগুলো চেয়ারম্যানকেই দেওয়া হয়েছে ।

এদিকে এ বিষয়ে কামালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামালের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আলাউদ্দিন জানান, এ পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ৪৮বস্তা চাউল উদ্ধার করা হয়েছে। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউনিও) আবু হাসান সিদ্দিক জানান, চাউল উদ্ধারের বিষয়টি শোনেছি, এ বিষয়ে নিয়মিত মামলা করা হবে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102