বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০১:০১ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
বকশীগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের জের, থানায় চাঁদাবাজীর অভিযোগ করল আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য বকশীগঞ্জে রহস্য উদঘাটন করলেন ওসি, জিজ্ঞাসাবাদে জানালো সে বাংলাদেশী বকশীগঞ্জে এসডিজি নীতিমালা বাস্তবায়ন ও প্রত্যাশা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত বকশীগঞ্জে জনতার হাতে আটক ভারতীয় নাগরিককে উদ্ধার করল পুলিশ বকশীগঞ্জে কর্মরত পুলিশ কনেস্টবল নিজামের অর্থে ১ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার বকশীগঞ্জে দিনমজুর সেজে গণধর্ষন মামলার আসামী গ্রেফতার করল পুলিশ বকশীগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক দলের দুই ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটি গঠিত বকশীগঞ্জে শ্বশুর ও দেবরের নির্যাতনে মৃত্যু শয্যায় গৃহবধু বকশীগঞ্জে নারীসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ৬ দফা দিবসে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

দাঁতের রুটক্যানাল চিকিৎসা

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১০ আগস্ট, ২০১৮
  • ১৭৮৬ জন সংবাদটি পড়ছেন

দাঁতের রুটক্যানাল চিকিৎসা সম্পর্কে আপনার ধারণা আছে কি? রুট ক্যানাল চিকিৎসা নিয়ে লেখেছেন ডাঃ নুরে আজিম।

আসুন তাহলে সাধারন একটী ধারণা নেই।

সহজ ভাষায়, আমাদের দাঁতের এই শক্ত আবরনের মধ্যে একটি নরম মজ্জা আছে, যাকে ডেন্টিস্ট্রির ভাষায় বলা হয় ডেন্টাল পাল্প। কোন কারণে এই ডেন্টাল পাল্প যদি ইনফেকশন হয়, বা শক্ত আবরনী (এনামেল ও ডেন্টীন) ক্ষয় হয়ে বাইরে উন্মুক্ত হয়ে যায়, তাহলে দাঁতে প্রচন্ড ব্যাথা হয়। ডাক্তারি ভাষায় যাকে বলে পালপাইটিস। একবার পালপাইটীস হলে তার একমাত্র চিকিৎসা (ফেলে দেয়া ব্যাতীত) হল রূট ক্যানাল ট্রিটমেন্ট।

এই চিকিৎসা পদ্ধতি তে আপনাকে কয়েকদিন আপনার ডেন্টীস্টের কাছে যেতে হবে, কারণ এটী একদিনে করা সম্ভব নয় (খুব বিশেষ কিছু ক্ষেত্র ছাড়া, তাকে বলে single visit root canal treatment)। প্রথমদিন ডাক্তার অসুস্থ দাঁতটির ভেতরের মজ্জা গুলো বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে বের করে নিয়ে আসেন। এর পরবর্তী দিনে রুট ক্যানালগুলির ভেতর পরিস্কার করে নির্দিষ্ট আকার প্রদান করা হয় এবং তৃতীয় দিনে যদি কোন সমস্যা পরিলক্ষিত না হয়, তাহলে দাঁত টী প্লাস্টিক জাতীয় একটী ম্যাটেরিয়াল দিয়ে সিল করে দেয়া হয়। যদি দাঁতটি অনেক দিন ধরে সমস্যাযুক্ত থাকে তাহলে তার মধ্যে পুঁজ জমে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে চিকিৎসা দীর্ঘ হতে পারে। এছাড়া আরো কিছু বিষয়ের উপর ভিত্তি করে ডাক্তার চিকিৎসা কিছুদিন দীর্ঘায়িত করতে পারেন। সাধারনত নূন্যতম ৩ দিনে কাজ করা হয়।

জরুরী বিষয়টি হল, সাধারনত প্রথম দিনের পরেই রোগীর সব ব্যাথা চলে যায়। ফলে আরো ২ দিন ডাক্তারের কাছে যেতে রোগী আগ্রহী হয় না। কিন্তু পরবর্তী তে এর ফল হয় মারাত্মক। সেই দাঁতে, এবং ক্ষেত্র বিশেষে আশেপাশের কিছু দাঁত সহ নতুন করে ইনফেকশন দেখা যায়। অনেক ক্ষেত্রে যা সিস্ট বা টিউমারে রূপান্তরিত হতে পারে। তাই রূট ক্যানাল চিকিৎসা শুরু করলে তা সম্পূর্ন শেষ করা অত্যন্ত জরুরী।

দ্বিতীয়ত, রূটক্যানাল চিকিৎসা করলে দাঁতটি ধীরে ধীরে ভঙ্গুর হতে থাকে, এবং ওই দাঁতে শক্ত কিছু খেতে গেলে দাঁতটি ভেঙ্গে যাবার সম্ভাবনা থাকে। এই ভেঙ্গে যাবার হাত থেকে বাঁচানোর জন্য দাঁতটিকে অবশ্যই ক্রাউন (বা ক্যাপ) করিয়ে নিতে হবে।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102