মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪১ অপরাহ্ন
Bengali Bengali English English
সদ্য পাওয়া :
দুই মামলায় রাশেদ চিশতির জামিন দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন অধ্যাপক সুরুজ্জামান বকশীগঞ্জে পৌর আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের সংর্ঘষ ।। আহত অর্ধশতাধিক বকশীগঞ্জে নারী ও শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত দেওয়ানগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর বকশীগঞ্জে এসডিজি অর্জনে জেলা নেটওয়ার্কের ষান্মাসিক সভা অনুষ্ঠিত সরিষাবাড়ীতে পুকুরে ডুবে ভাই বোনের মৃত্যু বকশীগঞ্জে ইলিশ রক্ষায় নিজেই মাঠে নামলেন ইউএনও মুনমুন জাহান লিজা জামালপুরে সাত দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহ শুরু বকশীগঞ্জে উপজেলা পরিষেদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

জামালপুরে ২৭৮ টি কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ ॥ ভেঙ্গে পড়েছে তৃণমুলের স্বাস্থ্য সেবা

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩১ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ১৯০৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

জামালপুরঃ কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে কমিউনিটি ক্লিনিকের কর্মরত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারর (সিএইচসিপিরা) আন্দোলন করায় টানা ১১দিন যাবত বন্ধ রয়েছে বহুল আলোচিত কমিউনিটি ক্লিনিক।



এতে ভেঙ্গে পড়েছে তৃণমুলের স্বাস্থ্য সেবা। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্ক মানুষ ঠান্ডজনিতে রোগে চিকিৎসা না পাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ থাকায় ছোটছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ নানা বেসরকারী ক্লিনিকে।

গত ২০ জানুযারী থেকে জামালপুরের ২৭৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ রয়েছে বলে জামালপুরের সিভিল সার্জনের অফিস সুত্রে জানা গেছে।

এদিকে কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ থাকায় জেলার প্রায় ২০লক্ষ মানুষ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিশেষ করে ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ ও বকশীগঞ্জের চরঞ্চলের মানুষের দুর্ভোগ এখন চরমে।

কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবা নিতে আসা বিনোদেরচর গ্রামের বাসিন্দা আবু কালাম জানান, বেশ কয়েকদিন যাবত কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ রয়েছে। আমার ছেলের একটু জ্বর হয়েছিল চিকিৎসা না পাওয়ায় এখন নিউমনিয়ায় হয়েছে। সে কারণে এখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছি ছেলের চিকিৎসা করতে।

একই কথা বললেন ষার্টার্ধো আমেনা বেগম, ঠান্ডা জ্বরে ভুগছি, ক্লিনিক গুলো খোলা থাকলে ৪০টাকা গাড়ী ভারা দিয়ে উপজেলা শহরে আসতে হত না।

কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারদের এসোশিয়েশনের সভাপতি ইকবাল মাহামুদ মোবাইলে জানান, চাকুরী জাতীয় করণের দাবীতে জামালপুরের সকল সিএইচসিপিরা এখন ঢাকায় অবস্থান করায় সকল কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো বন্ধ রয়েছে। আমাদের দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঢাকা থেকে বাড়ী ফিরব না।
এর আগে ২০, ২১ ও ২২ জানুয়ারী কমিউনিটি ক্লিনিক গুলো বন্ধ রেখে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে অবস্থান নেয়।
২৩ ও ২৪ তারিখেও কমিউনিটি ক্লিনিক গুলো বন্ধ রেখে জামালপুর সিভিল সার্জনের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয় জেলার সকল সিএইচসিপিরা।
২৭ তারিখ থেকে অদ্যবধি জামালপুরের সকল সিএইচসিপিরা ঢাকায় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান করছে বলে ইশবাল মাহামুদ আরও জানান।

কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো বন্ধ থাকায় স্বাস্থ্য সেবায় ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বিষয়টি স্বীকার করে জামালপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ গৌতম রায়  জানান, ভোগান্তি লাঘবে ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ে সকল চিকিৎসকদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ জানুয়ারি সিএইচসিপি এসোসিয়েশন এর কেন্দ্রীয় আহবায়ক শহিদুল ইসলাম ও প্রধান উপদেষ্টা কামাল সরকার ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটে সাংবাদিক সম্মেলনে চাকুরী জাতীয়করণের জন্য কর্মবিরতিসহ অবস্থান কর্মসূচীর ঘোষণা দেন। প্রাথমিক পর্যায়ে উপজেলা ও জেলাতে অবস্থান কর্মসূচী শেষে ২৭ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে সিএইচসিপিরা। এরপরেও যদি দাবি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত না আসে তাহলে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকা কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে আমরণ অনশন কর্মসূচীতে যাবে সারা দেশের কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত কমিউনিটি হেলথ প্রোভাইডাররা।

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ ধরনের আরও সংবাদ
সাপ্তাহিক বকশীগঞ্জ
        Develop By CodeXive Software Inc.
themesba-lates1749691102