বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন
Bengali Bengali English English

জামালপুরে বন্যার চরম অবনতি ॥ ২ লক্ষ মানুষ পানি বন্দি

সংবাদদাতার নামঃ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৮ জুলাই, ২০১৭
  • ৬৯৫ জন সংবাদটি পড়ছেন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ দ্রুত পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জামালপুরের বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়েছে। শনিবার সকালে যমুনার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় ৩৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রাবাহিত হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর পানি পরিমাপক আব্দুল মান্নান জানান, গত ১২ ঘন্টায় বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় ২৪ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে শনিবার সকালে বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় ১৯.৮৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
এখানে স্বাভাবিক পানি স্তর হচ্ছে ১৯.৫০ সেন্টিমিটার।

এদিকে অব্যাহতভাবে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জামালপুরের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়েছে।

এতে করে জামালপুর জেলার সার্বিক বন্যার পরিস্থিতি চরম অবনতি ঘটেছে। জেলার দেওয়ানগঞ্জ ও ইসলামপুর উপজেলায় প্রায় ২ লক্ষাধীক মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। এদিকে দুই উপজেলার স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসাসহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

বন্যা কবলিত এলাকার মানুষ উচু বাঁধে কিংবা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিতে শুরু করেছে বলে জানাগেছে।
যমুনার পানি প্রতি ঘন্টায় অব্যাহত ভাবে বৃদ্ধি পাওয়া ফলে পানির তোড়ে ইসলামপুর উপজেলার শিংভাঙ্গা সড়ক এবং দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা চত্ত্বর পানিতে তালিয়ে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। এ সকল এলাকা মানুষসহ গৃহপালিত গবাদি পশু,গরু, ছাগল হাঁস, মরগি নিয়ে পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। মানুষের খাদ্যের পাশাপাশি গো খাদ্যে চরম সংকট দেখা দিয়েছে।

পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র নদের অববাহিকা দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা চুকাইবাড়ী, চিকাজানী,বাহাদুরাবাদ এবং ইসলামপুর উপজেলার পার্থশী কুলকান্দি,বেলগাছা, চিনাডুলী, নোয়ারপাড়া, ইসলামপুর সদর, পলবান্দা এবং ইসলামপুর পৌরসভা, আংশিক বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। এসব এলাকায় নতুন করে প্লবিত হয়ে লক্ষাধীক মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। হাজার হাজার হেক্টর জমির ফসল রোপা আমন ধান, বীজতলা,পাট,উঠতি ফসল ইক্ষু,কাঁচা তরিতরকারী বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া যমুনার দুর্ঘম দ্বীপচর হরিণধরা, জিগাতলা, চর বেড়কুশা, চরবরুল, চর মুন্নিয়া, চর সিন্দুরতলি, চর চেঙ্গানিয়া, চরপ্রজাপতি, চর শিশুয়া ও চর বিশরশির এলাকায় মানুষের খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানি সংকট দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন চিনাডুলি ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম ও বেলগাছা ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক,পার্থশী ইউপির চেয়ারম্যান ইফতেখারুল ইসলাম বাবুল।

এদিকে গত ৭ জুলাই দিনভর জামালপুরের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি মাহজাবিন খালেদ বেবী ইসলামপুর উপজেলার পশ্চিম অঞ্চলের বেলগাছা ও কুলকান্দি ইউনিয়নের বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে দুর্গতদের জন্য সরকারী সাহার্য্য সহযোগিতার আশ্বস্ত করেছেন।

 

পছন্দ হলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102